Logo
সোমবার, ২১ জুন, ২০২১ | ৭ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সাধারণ বীমা ব্যবসায় ব্যবস্থাপনা ব্যয়ের সর্বোচ্চ হার বেঁধে গেজেট প্রকাশ

প্রকাশের সময়: ১০:১৯ পূর্বাহ্ণ - শনিবার | ফেব্রুয়ারি ৯, ২০১৯

তৃতীয় মাত্রা :

নন-লাইফ বা সাধারণ বীমা ব্যবসায় কোম্পানিগুলোর ব্যবস্থাপনা ব্যয়ের সর্বোচ্চ হার বেঁধে দিয়ে ‘নন-লাইফ ইন্স্যুরেন্স ব্যবসা ব্যবস্থাপনা ব্যয়ের সর্বোচ্চ সীমা নির্ধারণী বিধিমালা-২০১৮’ নামের বিধিমালার চূড়ান্ত গেজেট প্রকাশ করেছে আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের বীমা শাখা।

সম্প্রতি প্রকাশিত ওই গেজেট অনুসারে, অগ্নি ও অন্যান্য বীমার ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট বছরে প্রথম ১৫ কোটি টাকার গ্রস প্রিমিয়াম অর্জনের ৩৫ শতাংশ পর্যন্ত ব্যবস্থাপনা ব্যয় করতে পারবে কোম্পানিগুলো। নৌ বীমার ক্ষেত্রে তা ২৬ শতাংশ।

প্রবিধানমালায় আরও আছে, অগ্নিবীমা ও অন্যান্য বীমার পরবর্তী ১৫ কোটি টাকা প্রিমিয়ামের ৩৩ শতাংশ এবং নৌবীমার ক্ষেত্রে ২৫ শতাংশ পর্যন্ত ব্যবস্থাপনা ব্যয় বাবদ খরচ করতে পারবে নন লাইফ কোম্পানিগুলো। পরবর্তী ১৫ কোটি টাকার ওপর এ হার যথাক্রমে ৩২ শতাংশ ও ২৪ শতাংশ, তার পরের ১৫ কোটি টাকার ৩০ শতাংশ ও ২২ শতাংশ, এরও পরের ১৫ কোটি টাকার ২৮ শতাংশ ও ২০ শতাংশ পর্যন্ত খরচ করা যাবে।

এর পরের ১৫ কোটি টাকা প্রিমিয়ামের ২৬ শতাংশ ও ১৮ শতাংশ এবং পরবর্তী ৩০ কোটি টাকা প্রিমিয়ামের বিপরীতে অগ্নি ও অন্যান্য বীমায় খরচ করা যাবে ২৪ শতাংশ, নৌ বীমার ক্ষেত্রে যা ১৭ শতাংশ। এর চেয়ে অর্থাৎ ১২০ কোটি টাকার বেশি প্রিমিয়াম পেলে বর্ধিত প্রিমিয়ামের বিপরীতে যথাক্রমে সর্বোচ্চ ২২ ও ১৬ শতাংশ হারে ব্যবস্থাপনা ব্যয় করা যাবে।

এদিকে নন-লাইফ বীমা কোম্পানি তাদের ব্যবসার প্রথম ১০ বছরে কমিশন খরচ ও পারিশ্রমিক মিলিয়ে ভিন্ন হিসাবের ভিত্তিতে ব্যবস্থাপনা ব্যয় করতে পারবে। ব্যবসা শুরুর প্রথম বছরে মোট পরিশোধিত মূলধনের সর্বোচ্চ ১০ শতাংশ এবং পরবর্তী তিন বছরের প্রতিবছর পরিশোধিত মূলধনের ওপর অর্জিত সুদ, দ্বিতীয় ধাপের তিন বছরে মোট পরিশোধিত মূলধনের ওপর অর্জিত সুদ বা সংশ্লিষ্ট বছরে দেশে ইস্যু করা সব পলিসির গ্রস প্রিমিয়ামের মধ্যে যেটি কম তার সমান ব্যবস্থাপনা ব্যয় করতে পারবে কোম্পানিগুলো।

এর পরের তিন বছরে পরিশোধিত মূলধনের ওপর অর্জিত সুদের তিন-চতুর্থাংশ বা সে বছরে সরাসরি দেশে ইস্যু করা পলিসি থেকে আসা গ্রস প্রিমিয়াম আয়ের ২ দশমিক ৫ শতাংশের মধ্যে যেটি কম তা খরচ করতে পারবে নতুন প্রজন্মের নন-লাইফ বীমা কোম্পানিগুলো।

Read previous post:
লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৮ শতাংশ বেশি আয় রফতানি আয়ে

তৃতীয় মাত্রা : রফতানি আয়ে ইতিবাচক ধারা ধরে রেখেছে বাংলাদেশ। টানা পাঁচ মাস ধরে বাড়ছে অর্থনীতির অন্যতম প্রধান এই সূচক।...

Close

উপরে