Logo
রবিবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২০ | ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ওজন কমানোর ক্ষেত্রে যে ভুলগুলো করবেন না

প্রকাশের সময়: ১০:২১ পূর্বাহ্ণ - মঙ্গলবার | সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৬

Woman stepping on scale, canon 1Ds mark III

বাড়তি ওজন কমানোর জন্য আমরা কতোকিছুই না করে থাকি। কিন্তু ওজন কমানের চেষ্টায় মাঝে মাঝে এমন কিছু ভুল হয় যে, ওজন কমার বদলে যায় বেড়ে। জেনে নিন ওজন কমাতে চাইলে যে ভুলগুলো থেকে দূরে থাকবেন-

* বেশির ভাগ মানুষই চটজলদি ওজন কমাতে ক্র্যাশ ডায়েট করে থাকেন। এতে দ্রুত ওজন কমানোও যায়। এভাবে মানুষের শরীরে প্রতিদিন স্বাভাবিকভাবে যে ক্যালরি গ্রহণ হয়, তার পরিমাণ কমিয়ে আনা হয়। তবে এই ডায়েটের প্রতিক্রিয়াও আছে। ওজন কমানোর এই স্বল্পমেয়াদি পরিকল্পনা যখন শেষ হয়ে যায়, তখন মানুষের শরীর এমন একটি অবস্থায় থাকে, যা অনেক ধীরে ধীরে ক্যালরি খরচ করে। তাই খাওয়া-দাওয়ায় ন্যূনতম নিয়ন্ত্রণ না থাকলে মানুষের শরীরের ওজন সহজেই বেড়ে যেতে পারে।
* ক্যালরি কম গ্রহণ করতে গিয়ে অনেকেই সকালের খাবার বাদ দেন। কিন্তু এতে করে সারা দিন ক্ষুধা লেগেই থাকে। আর তা মেটাতে দিনভর অপরিকল্পিতভাবে খাওয়া চলতে থাকে। ফলে ওজন বেড়েই যায়। সকালে আমিষ ও আঁশসমৃদ্ধ খাবার বেশি করে খেলে, তা দিনভর শরীরকে চাঙা রাখে। ক্ষুধা লাগে কম।
* ওজন কমানোর জন্য অনেকে কম চর্বির খাবার খান। কিন্তু কম চর্বি মানেই ক্যালরি কম হবে, এমন নয়। বরং খাবার পছন্দের সময় চর্বি ও ক্যালরির পরিমাণ জেনে নিলে ওজন কমানো সহজ হবে।
* ওজন কমানোর আরেকটি ভুল হলো পানি কম পান করা। পানি ক্যালরি পোড়াতে সাহায্য করে। যদি মানুষের শরীরে পানিশূন্যতা দেখা দেয়, তবে বিপাক ক্রিয়া ধীর হয়ে যায়। এতে করে ওজন কমার হারও কমে আসে।
* ওজন কমাতে গিয়ে অনেকে দুগ্ধজাত খাবার খাওয়া বন্ধ করে দেন। কিন্তু এতে এসব খাবারে ক্যালসিয়াম বেশি পরিমাণে থাকে। শরীরে ক্যালসিয়ামের অভাব হলে, তা বেশি ক্যালরি পোড়াতে পারে না। এতে করে শরীরে চর্বির পরিমাণও বেড়ে যেতে পারে। তাই দুগ্ধজাত খাবার খাওয়া একেবারে বন্ধ করে দেওয়া উচিত নয়।
Read previous post:
অভিনয় জগতে এসে পরিচালকের সঙ্গে সহবাসের প্রস্তাব পেয়েছিলেন সুরভিন চাওলা

কেরিয়ারের শুরুর দিকে একটি জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘কঁহি তো হোগা’-তে অভিনয় করা শুরু করেন। অভিনয় জগতে একটু নাম করার পরেই অভিনেত্রী...

Close

উপরে