Logo
বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ | ১লা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পদ্মা সেতু দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্নের চেষ্টা হয়েছিল: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশের সময়: ১২:৩৩ অপরাহ্ণ - মঙ্গলবার | ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৭

পদ্মা সেতু নিয়ে অপবাদ দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার চেষ্টা হয়েছিল। মিথ্যা অভিযোগের কারণে পদ্মা সেতুর অর্থায়ন বন্ধ করেছিলো বিশ্বব্যাংক। এজন্য অন্যায়ভাবে জেল খাটতে হয়েছে একজন সচিবকে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে একনেকের সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতির মিথ্যা অভিযোগ তুলে অর্থায়ন ফিরিয়ে নেয় বিশ্বব্যাংক। আর এখন কানাডার আদালতে প্রমাণ হয়েছে এখানে কোনো দুর্নীতি হয়নি। ২০১০ সালে দেশের সবচে বড় প্রকল্প পদ্মা সেতুর পরামর্শক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ তোলে বিশ্বব্যাংক।

ফলে সে সময়ের যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা করার দাবি তোলে সংস্থাটি। তাদের অভিযোগ ছিল কানাডার প্রতিষ্ঠান এসএনসি লাভালিনের কর্মীরা ঘুষ দিয়ে পরামর্শকের কাজ বাগিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেছিল। তাদের অনুরোধে কানাডা সরকার সে দেশে মামলা করে এবং লাভালিনের তিন কর্মকর্তার বিচার হয়।

উল্লেখ্য, দুর্নীতির প্রমাণ পাওয়া গেছে দাবি করে ২০১২ সালের ২৯ জুন পদ্মা সেতু প্রকল্পে অর্থায়ন বাতিলের ঘোষণা দেয় বিশ্ব ব্যাংক। ২শ’ ৯০ কোটি ডলারের এ প্রকল্পে সংস্থাটির দেয়ার কথা ছিল ১শ’ ২০ কোটি ডলার।

এছাড়া এডিবি ৬১ কোটি, জাইকা ৪০ কোটি এবং ইসলামী উন্নয়ন ব্যাংক (আইডিবি) ১৪ কোটি ডলার ঋণ দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বিশ্ব ব্যাংক অর্থায়ন থেকে সরে যাওয়ার পর একই পথে হাটে এডিবি ও জাইকা।

Read previous post:
জেএমবির সাবেক প্রধানসহ তিনজনের বিচার শুরু

নিষিদ্ধঘোষিত সংগঠন জামায়াতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) সাবেক প্রধান মাওলানা সাঈদুর রহমানসহ তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। আর এর মধ্য...

Close

উপরে