Logo
শনিবার, ০৬ মার্চ, ২০২১ | ২১শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ট্রাম্প সমর্থকদের এবার বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠান টার্গেট

প্রকাশের সময়: ৯:৪১ অপরাহ্ণ - রবিবার | জানুয়ারি ১০, ২০২১

তৃতীয় মাত্রা

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল ভবনে নজিরবিহীন হামলা চালিয়েছে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমর্থকরা। এ ঘটনায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ধরপাকড়ের মধ্যেই নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানে হামলার পরিকল্পনা করেছে ট্রাম্পের উগ্র সমর্থকরা।  তারা ওয়াশিংটনে হাজির হওয়ার প্রতিজ্ঞা করেছে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, একজোট হওয়ার জন্য নিজেদের মধ্যে যোগাযোগে তারা নানা অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করছে।
সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তারা ‘ট্রাম্প নয়ত যুদ্ধের’ ডাক দিয়েছে।

আগামী ২০ জানুয়ারি ট্রাম্প বিদায় নেবেন। আর নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেবেন ডেমোক্র্যাটের জো বাইডেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম পার্লার’র এ এক ট্রাম্প সমর্থক লেখেন, ‘১৯ জানুয়ারি ২০২১ আমাদের অনেকে ফিরে আসবে, আমাদের জাতীয় সংকল্পের সমর্থনে আমরা অস্ত্র নিয়ে আসব, যেটা এই বিশ্ব কোনোদিন ভুলতে পারবে না!!! আমরা এত সংখ্যায় আসব যে, কোনো সেনাবাহিনী বা পুলিশ বাহিনী তার মোকাবিলা করতে পারবে না।’

এনবিসি নিউজ এর প্রতিবেদনে বলা হয়, পার্লার, টেলিগ্রাম চ্যাট রুমস ও দ্যডোনাল্ড ডট উইন এর মতো অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে গত ৬ জানুয়ারি ওয়াশিংটন ডিসিতে জড়ো হয়েছিল ট্রাম্প সমর্থকরা। পরে তারা ক্যাপিটলে তাণ্ডব চালায়। বিশ্বকে স্তব্ধ করে দেওয়া ওই তাণ্ডবে এক পুলিশসহ পাঁচজন নিহত হন।

মার্কিন কংগ্রেস ভবন ক্যাপিটল হিলে গত বুধবারের ওই হামলায় কট্টর-ডানপন্থি কিউএনন ষড়যন্ত্র তত্ত্ববাদে বিশ্বাসী এবং নানা চরমপন্থি দলের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিরা অংশ নেন।

দ্য ডোনাল্ড ডট উইন এ অজ্ঞাত পরিচয়ের এক ব্যক্তি পোস্ট করেন, ‘দ্বিতীয় দফা হবে ২০ জানুয়ারি। এবার কোনও দয়া দেখানো হবে না। আমি এমনকি ট্রাম্পকে ক্ষমতায় রাখা নিয়েও মাথা ঘামাচ্ছি না। আমার মূল লক্ষ্য যুদ্ধ।’

এনবিসি নিউজ লিখেছে, ওই পোস্টের নিচে যেসব মন্তব্য পড়েছে তা দেখে মনে হচ্ছে বুধবারের হামলাকারীদের তারা ‘বীরের’ সম্মান দিচ্ছেন।

ক্যাপিটল হিলে হামলার ঘটনায় চাপের মুখে রয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।  এদিকে টুইটার কর্তৃপক্ষ ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দিয়েছে। ট্রাম্প কিছু একটা হলেই সঙ্গে সঙ্গে টুইট করতে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন।

এরইমধ্যে তার নিজ দলের অনেক নেতা ট্রাম্পের ওপর থেকে সমর্থন প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।  পাশাপাশি অভিশংসন বা ইমপিচমেন্টের পক্ষে মত দিয়েছেন। তার কাছ থেকে পরমাণু অস্ত্রের কোড কেড়ে নেয়ার দাবিও জোরালো হচ্ছে।

 

Read previous post:
রোহিঙ্গাদের ফেরাতে অজুহাত দেখিয়ে সময়ক্ষেপণ করছে মিয়ানমার

ফাইল ছবি তৃতীয় মাত্রা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেছেন, বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠানোর ব্যাপারে সরকার এখনো...

Close

উপরে