Logo
শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১ | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ফ্রিজে খাবার সংরক্ষণে সতর্ক থাকবেন যেসব বিষয়ে

প্রকাশের সময়: ২:৪২ অপরাহ্ণ - বুধবার | জুলাই ৭, ২০২১

তৃতীয় মাত্রা

ফ্রিজ আমাদের দৈনন্দিন জীবনকে অনেক সহজ করে দিয়েছে। কমবেশি আমরা সবাই জানি ফ্রিজের সুবিধা সম্পর্কে। যেমন বারবার বাজার করার কোন ঝামেলা থাকে না, খাবার নষ্ট হওয়ার ভয় থাকে না। সময়ের অপচয় হয় না।

খাবার ভালো রাখার জন্যই ফ্রিজে রাখা। তবে অনেক সময় ফ্রিজে রাখা খাবার বের করে গরম করার সময় দেখা যায় তা নষ্ট হয়ে গেছে। এর কারণ আপনি সঠিক উপায়ে খাবার সংরক্ষণ করতে পারেননি। ফ্রিজে খাবার রাখারও কিছু নিয়ম রয়েছে।

কোন খাবার কতদিন রাখা যাবে সে বিষয়ে আগে জেনে নেয়া দরকার। এমন কিছু জীবাণু রয়েছে যেগুলো কেবল ঠান্ডায় জন্মায়। ডিপফ্রিজে খাবার রাখা মানেই নিরাপদ নয়।

ফ্রিজে খাবার রাখার আগে জেনে নিন কিছু নিয়ম-

অনেকেই রান্না করা ও কাঁচা খাবার একইসঙ্গে ফ্রিজে রাখেন। অথচ কাঁচা এবং রান্না করা খাবার সংরক্ষণের পদ্ধতি কিন্তু এক নয়।এই দুই ধরণের খাবার ফ্রিজে আলাদা আলাদা সংরক্ষণ করতে হবে। ফ্রিজে খাবার সংরক্ষণের সময় এই দিকে অবশ্যই খেয়াল রাখবেন।

ফ্রিজে ডিম রাখার ক্ষেত্রে ট্রে ব্যবহার না করে বক্সে রাখুন। এতে ডিম ভালো থাকবে। মাছ-মাংসের তাজা স্বাদ ধরে রাখার জন্য তা ভালোভাবে ধুয়ে লবণ, গোল মরিচের গুঁড়া ও লেবুর রস মাখিয়ে এয়ার টাইট বক্সে রাখুন। যখনই রান্না করুন না কেন, স্বাদ অটুট থাকবে।

মৌসুমী ফল পরেও খাওয়ার জন্য অনেকে দীর্ঘদিন ডিপফ্রিজে সংরক্ষণ করে রাখেন। এক্ষেত্রে অবশ্যই সঠিক নিয়ম মেনে তারপর রাখতে হবে। কারণ বেশিদিন এসব ফল ফ্রিজে রাখলে তার স্বাদ ও পুষ্টি নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

ফ্রিজে খাবার খোলামেলা ফেলে রাখবেন না। খেয়াল রাখবেন, ফ্রিজে যেন ঢাকনা ছাড়া কোনো খাবার রাখা না হয়। কারণ এতে নষ্ট হয়ে যায় খাবারের গুণগত মান। যা শরীরের পক্ষে মোটেই ভালো নয়। সুস্থ থাকতে তাই ফ্রিজে খাবার রাখার ক্ষেত্রে সঠিক নিয়মগুলো মেনে চলতে হবে।

ফ্রিজে খাবার রাখার ক্ষেত্রে বক্স ব্যবহার করলে সেটি একেবারে ঠেসে ভরবেন না। মাঝখানের কিছুটা অংশ ফাঁকা রাখুন। এতে ভেতরে বাতাস চলাচল সহজ হবে। অনেকে ফ্রিজের দরজায় আদা, লেবু ইত্যাদি রেখে দেন। এমনটা করা যাবে না। ফ্রিজের দরজায় রাখুন সস, ভিনেগার ইত্যাদি।

অবশ্যই খাবার সংরক্ষণের ক্ষেত্রে ফ্রিজের তাপমাত্রার দিকে নজর রাখা জরুরি। বর্ষা কিংবা শীতের সময়ে যে তাপমাত্রার দরকার হয়, গরমে তার চেয়ে বেশি দরকার হতে পারে। তাই আবহাওয়ার ধরন বুঝে বা প্রয়োজন অনুযায়ী বাড়িয়ে কিংবা কমিয়ে নিবেন।

অনেকে আবার ফ্রিজে মাখন, চিজ ইত্যাদি রাখার সময় কোনো ধরনের বক্স ব্যবহার করেন না। শুধু প্যাকেটে করেই রেখে দেন। এভাবে রাখা ঠিক নয়। দীর্ঘদিন ভালো রাখার জন্য কোনো এয়ারটাইট বক্সে চিজ, মাখন ইত্যাদি সংরক্ষণ করুন।

একসঙ্গে অনেক খাবার ফ্রিজে সংরক্ষণ করবেন না। প্রয়োজন অনুযায়ী খাবার ছোট ছোট ভাগ করে বক্সে রাখুন। এতে যখন যতটুকু দরকার হবে, তখন ততটুকু বের করবেন।

Read previous post:
নালিতাবাড়ীতে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ১৩টি মামলা ও অর্থদন্ড

তৃতীয় মাত্রা এম.এ কাশেম, নালিতাবাড়ি থেকে : সারাদেশের ন্যায় শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে কঠোর লকডাউনের ৬ষ্ঠ দিনে প্রশাসন কর্তৃক অভিযানে মাস্ক পরিধান...

Close

উপরে