Logo
মঙ্গলবার, ১১ মে, ২০২১ | ২৮শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

জগন্নাথপুরের ইউএনও’র মোবাইল ফোন ক্লোন করে টাকা দাবি

প্রকাশের সময়: ৪:১৩ অপরাহ্ণ - মঙ্গলবার | এপ্রিল ১৩, ২০২১

তৃতীয় মাত্রা

মোশারফ হোসেন খান, সিলেট থেকে : সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মেহেদী হাসানের সরকারি মুঠোফোন ক্লোন করে উপজেলার কলেজ ও মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষকদের কাছে টাকা দাবির অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার (১২ই এপ্রিল) সন্ধ্যায় জগন্নাথপুরের ইউএনও মেহেদী হাসানের সরকারি মুঠোফোন ক্লোন করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ল্যাপটপ বরাদ্দের কথা জানিয়ে বিকাশে জরুরি ভিত্তিতে টাকা পাঠানোর কথা বলা হয়। বিষয়টি বুঝতে পেরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দপ্তরে যোগাযোগ করলে ঘটনাটি জানাজানি হয়। পরে ইউএনও মেহেদী হাসান নিজের ফেসবুক পেজে প্রতারক থেকে সাবধান থাকার আহ্বান জানিয়ে তার সরকারি মুঠোফোন ক্লোন হওয়ার কথা জানান।

জগন্নাথপুর উপজেলার কেশবপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফররুখ আহমদ বলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সরকারি মুঠোফোন থেকে সাড়ে সাতটায় আমাকে ফোন করে বলে আপনার প্রতিষ্ঠানের জন্য একটি ল্যাপটপ সরকার থেকে বরাদ্দ পাওয়া গেছে। আমি এখন ডিসি অফিসে আছি। আপনি এই মুহূর্তে ৯ হাজার টাকা পাঠান এই ০১৬৩৭৬৮৮০৮৫ নাম্বারে। বিষয়টি সন্দেহ হলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দপ্তরে যোগাযোগ করে তার সরকারি নাম্বার ক্লোন হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হই।

শাহজালাল মহা বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ এম এ মতিন বলেন, আমাকে ইউএনও’র সরকারি মুঠোফোন থেকে বার বার ফোন করা হয়। ফোন ধরে যখন টাকা চায় তখন সন্দেহ হলে আমি বিষয়টি নিশ্চিত হতে নানা প্রশ্ন করি তখন প্রতারক চক্র ফোন কেটে দেয়।

জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মেহেদী হাসান বলেন, খবর পেয়ে সংশ্লিষ্টদের সাথে যোগাযোগ করে বিকাশ নাম্বারটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও প্রতারণার বিষয়ে সতর্ক্ হতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারণা চালানো হয়েছে। তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত কারো কাছ থেকে টাকা নেওয়ার খবর পাওয়া যায়নি।

Read previous post:
কাউকে ঘরের বাইরে দেখতে চাই না: আইজিপি

তৃতীয় মাত্রা মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কাউকে ঘরের বাইরে বের না হতে বলেছেন...

Close

উপরে