• Saturday, 04 February 2023
জাতীয় পার্টিকে শক্তিশালী করতে  নেতাকর্মীদের আত্মনিয়োগের আহবান রওশন এরশাদের

জাতীয় পার্টিকে শক্তিশালী করতে নেতাকর্মীদের আত্মনিয়োগের আহবান রওশন এরশাদের

স্টাফ রিপোর্টার

জাতীয় পার্টির সবস্তরের নেতাকর্মী ও নবাগতদের উদ্দেশ্যে দলের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ বলেন, পার্টি শক্তিশালী করতে পল্লীবন্ধুর আদর্শ মেনে গ্রামবাংলার মানুষের সেবায় নিজেদের আত্মনিয়োগ করতে হবে। তোমাদের মনে রাখতে হবে গ্রামের মানুষের কল্যাণের জন্যই এরশাদ জাতীয় পার্টি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। তিনি আমাদের মাঝে নেই কিন্তু আল্লাহর অশেষ রহমতে পার্টির লাখ লাখ নেতাকর্মীর মাঝে পল্লীবন্ধু এরশাদ ও তাঁর আদর্শ বেচে আছে। 
 
রওশন এরশাদের আহবানে সাড়া দিয়ে শনিবার ০৩ ডিসেম্বর রাতে রাজধানীর হোটেল ওয়েস্টিনে তাঁর সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় ও জাতীয় পার্টিতে যোগ দিতে আসা নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি এসব কথা বলেন। 
 
এসময় জাতীয় পার্টির সরকারের সাবেক প্রতিমন্ত্রী গোলাম সারোয়ার মিলন, রাষ্ট্রপতির সাবেক ছাত্র ও শিক্ষা বিষয়ক উপদেষ্টা রফিকুল হক হাফিজ ও বাংলাদেশ ইউনিয়ন সদস্য সংস্থা-বাইসসের সিনিয়র সহ সভাপতি হাসান রকীব আজাদের নেতৃত্বে মানিকগঞ্জ বিকল্পধারা ও বিভিন্ন স্তরের অর্ধশতাধিক জনপ্রতিনিধি বিরোধী দলীয় নেতার হাতে ফুল দিয়ে জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন। 
 
এসময় উপস্থিত ছিলেন পল্লীবন্ধুপুত্র ও রংপুর ৩ আসনের এমপি রাহগির আল মাহি সাদ এরশাদ, পার্টির সিনিয়র নেতা ও সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য এসএমএম আলম, বিরোধী দলীয় নেতার রাজনৈতিক সচিব গোলাম মসীহ্, সাবেক এমপি এমএ গোফরান, জাতীয় পার্টি ও প্রধান পৃষ্ঠপোষকের মূখপাত্র কাজী মামুনূর রশীদ, সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ফখরুজ্জামান জাহাঙ্গীর, পার্টির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইকবাল হোসেন রাজু, নূরুল ইসলাম নূরু, পার্টির সিনিয়র নেতা ও সাবেক ছাত্রনেতা খন্দকার মনিরুজ্জামান টিটু, জাপা নেতা মিজানুর রহমান দুলাল প্রমূখ। 
 
এসময় সাবেক প্রতিমন্ত্রী গোলাম সারোয়ার মিলন বলেন, নিজ ঘরে (জাতীয় পার্টি) ফিরে এসে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছি। বার বার ভুল ও অভিমানে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছি। এবার আর ভুল করতে চাই না। পিতাকে(হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ) হারিয়ে মায়ের( রওশন এরশাদ) পাশে এসে দাঁড়িয়েছি, আশাকরি পার্টি শক্তিশালী হবে, ইনশাল্লাহ। 
 
সাবেক রাষ্ট্রপতির ছাত্র ও শিক্ষা বিষয়ক উপদেষ্টা ও নতুনবাংলা ছাত্র সমাজের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি রফিকুল হক হাফিজ বলেন, যে উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে আজ আমরা একত্রিত হয়েছি, তা কাজে লাগাতে হবে। পার্টিতে কোনো বিভেদ বিভ্রান্তি বা দ্বন্দ্ব সৃষ্টি করা যাবে না। রওশন এরশাদকে ইঙ্গিত করে হাফিজ বলেন, আপনি যদি শক্ত থাকেন তাহলে যে টিম আজ আপনার পাশে আছে, তারাই পার্টিকে কাঙ্খিত লক্ষ্যে নিয়ে যাবে,ইনশাল্লাহ। 
 
বিরোধী দলীয় নেতার রাজনৈতিক সচিব গোলাম মসীহ্ বলেন, কোনো ধরনের পৃথক বলয় বা গ্রুপিং সৃষ্টি করা যাবে না। জাতীয় পার্টিকে সুসংগঠিত করতে হবে। কাউকে আপসেট করা যাবে না। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় দলকে এগিয়ে নিতে হবে। নবাগত নয়, ঘরের ছেলেরা, ঘরেই ফিরে এসেছে। এজন্য দরকার নেতৃত্বের সুযোগ সৃষ্টি করে দেয়া। 
 
জাতীয় পার্টি ও দলের প্রধান পৃষ্ঠপোষকের মূখপাত্র কাজী মামুনূর রশীদ বলেন, এই দলের জন্য পল্লীবন্ধু, ম্যাডাম রওশন এরশাদ শিশুপুত্র সাদসহ জেল খেটেছেন, হাজার হাজার নেতাকর্মী জেল-জুলুম নির্যাতর সহ্য করেছেন। বিগত বছরগুলো অনেক কষ্টে লালিত হয়েছে জাতীয় পার্টি। তাই পার্টিকে সুসংগঠিত করতে হবে, শক্তিশালী করতে হবে। মান অভিমান ও ভুল বোঝাবুঝি পেছনে ফেলে জাতীয় পার্টিকে রাষ্ট্র ক্ষমতায় নিয়ে যেতে হবে। অসহায় নি:স্ব মানুষের কল্যাণে কাজ করতে হবে। প্রশাসনিক বিকেন্দ্রীকরণের মাধ্যমে পল্লীবন্ধু উন্নয়ণের যে যাত্রা শুরু করে গেছেন, সে ধারা অব্যাহত রাখতে গণমানুষের সমর্থনে আবারো ক্ষমতায় যেতে হবে।

comment / reply_from