• Saturday, 28 January 2023

চামড়াশিল্পকে শক্তিশালী করার এখনই সময়

চামড়াশিল্পকে শক্তিশালী করার এখনই সময়

চামড়াশিল্পে বিশ্বের আধুনিক সব প্রযুক্তি নিয়ে দেশের অন্যতম বৃহৎ কনভেনশন সেন্টার ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) প্রদর্শনী শুরু হয়েছে। গত বুধবার শুরু হওয়া তিন দিনব্যাপী এই প্রদর্শনীতে এ সেক্টরের নতুন-পুরনো সব রপ্তানিকারক এক ছাদের নিচে সব তথ্য পাবেন। এই ট্রেড শোতে ১০ দেশের ২০০ প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করেছে বলে জানা যায়। এ অনুষ্ঠানের আয়োজকরা জানান, চামড়াশিল্পকে যদি আরোও শক্তিশালী করতে হয়, তাহলেই সাপ্লাই চেইন মজবুত করতে হবে।

লেদার গুডস অ্যান্ড ফুটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (এলএফএমইএবি) এর সভাপতি সৈয়দ নাসিম মঞ্জুর বলেন, ‘চায়না ও ভিয়েতনামে করোনার কারণে মার্কেট বন্ধ। তাই বিশ্বের নামিদামি বায়ারদের নজর এখন বাংলাদেশের দিকে, যা আমাদের এই লেদার সেক্টরকে আরো সম্ভাবনাময় করে তুলবে। এখনই বাংলাদেশের সময় চামড়াশিল্পকে আরো উন্নত মানের করা। পাশাপাশি উৎপাদন বাড়ানোর। আমরা সস্তা প্রডাকশন চাই না, ভালোমানের প্রডাক্ট চাই।’

উদ্বোধনী এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, ‘চামড়াশিল্পের উন্নয়নে দরকার দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ। তাই বিদেশিদের পাশাপাশি দেশীয় বিনিয়োগকারীদের চামড়াশিল্পে বিনিয়োগ করতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘সরকার ১০০টির ওপর ইকোনমিক জোন চালু করেছে। তাই আমরা বিদেশি ইনভেস্টরদের উৎসাহিত করছি। যাতে তাঁরা দেশের চামড়া খাতে ইনভেস্ট করেন। আমরা বিশ্বাস করি ভালো ইনভেস্টমেন্ট থাকলে আমাদের চামড়া খাতে উৎপাদন যেমন বুস্ট হবে। একই সঙ্গে অনেক নতুন উদ্যোক্তা এই সেক্টরে যুক্ত হবেন। এ খাতে রপ্তানি আরো বাড়াতে চাইলে ইনভেস্টরের প্রয়োজন আছে।’

আগামীতে দেশের চামড়াশিল্পের অনেক ভালো সম্ভাবনা রয়েছে বলেও মনে করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি (টিপু মুনশি ) বলেন, ‘আমি মনে করি আগামীতে চামড়াশিল্প আমাদের অর্থনীতিতে গার্মেন্টশিল্পের চেয়েও ভালো অবদান রাখবে। আমরা চেষ্টা করছি চামড়াশিল্পের রপ্তানি আয় ২০৩০ সালের মধ্যে এক বিলিয়ন ডলার থেকে ১০ থেকে ১২ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত করার। চলতি বছরে চামড়াশিল্পে রপ্তানি আয় বেড়েছে প্রায় ৩০ শতাংশ।’

তিন দিনব্যাপী এই ট্রেড শোতে ১০ দেশের ২০০টি প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করেছে বরে জানা গেছে। এসব প্রতিষ্ঠানের চামড়া, চামড়াজাত পণ্য ও ফুটওয়্যারশিল্পের জন্য প্রয়োজনীয় মেশিনারিজ, কম্পোনেন্ট, কেমিক্যাল ও অ্যাকসেসরিজ তুলে ধরা হয়। এক্সপোর শেষ দিন আগামীকাল হলো শুক্রবার।

comment / reply_from