• Tuesday, 07 February 2023
চট্রগ্রামে শিশু কন্যা আয়াতকে ৬ টুকরা করলো অপহরণকারী

চট্রগ্রামে শিশু কন্যা আয়াতকে ৬ টুকরা করলো অপহরণকারী

আবদুর রহিম, ডবলমুরিং, চট্রগ্রাম : 
মুক্তিপণের টাকার জন্য অপহরণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করে ছয় টুকরা করা হয় চট্টগ্রামের ইপিজেড থানার বন্দরটিলার নিখোঁজ শিশু কন্য আয়াতকে। ছয় বছর বয়সী এই শিশু কন্যাকে ছয় টুকরা করার পর তা নগরীর কাট্টলী সাগরপাড়ে ফেলে দেওয়া হয়। 
নিখোঁজের দশ দিন পর গতকাল ২৪ নভেম্বর রাতে নগরীর আকমল আলী রোড এলাকার বাসা থেকে আয়াতদের ভাড়াটিয়া আবির আলী নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করে পিবিআই।  গ্রেপ্তারের পর রাতে হত্যার কারণ ও লাশ ছয় টুকরো করে সাগর পাড়ে ফেলে দেওয়ার কথা স্বীকার করে নেয় ওই পাষণ্ড যুবক। 

 পিবিআই চট্টগ্রাম মেট্রোর পরিদর্শক ইলিয়াস খান আজ শুক্রবার গণমাধ্যমকে বলেন, 'আবির আলী নামে আয়াতদের এক ভাড়াটিয়া মুক্তিপণের উদ্দেশ্যে ঘটনার দিন বিকেলে আয়াতকে অপহরণ করে। পরে আয়াত চিৎকার করলে তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে। পরে বাজারের ব্যাগে ভরে চট্রগ্রাম নগরীর আকমল আলী সড়কের বাসায় নিয়ে ছয় টুকরো করে। তারপর কাট্টলীর সাগর পাড়ে ফেলে দেয়। গ্রেপ্তারের পর আবির আলী সব কিছু স্বীকার করে নেয়। মরদেহ টুকরো করার কাজে ব্যবহার করা বটি ও অ্যান্টি কাটার উদ্ধার করা হয়েছে আবির আলীর বাসা থেকে। 

উল্লেখ্য, গত ১৫ নভেম্বর চট্টগ্রামের ইপিজেড থানার বন্দরটিলার এলাকার নয়ারহাট বিদ্যুৎ অফিস এলাকার বাসা থেকে পার্শ্ববর্তী মসজিদে আরবি পড়তে যাওয়ার সময় নিখোঁজ হয় আলিনা ইসলাম আয়াত।  পরদিন শিশুর বাবা সোহেল রানা এ ঘটনায় ইপিজেড থানায় নিখোঁজের ডায়েরি করলেও কোন হদিস মিলেনি। অবশেষে নয় দিন পর এ নিখোঁজ রহস্যের জট খুললো।
 
 
 

comment / reply_from