• Friday, 27 January 2023
চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দরে বসলো ৬টি ই-গেট

চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দরে বসলো ৬টি ই-গেট

মো.মুক্তার হোসেন বাবু,চট্টগ্রাম ব্যুরো:: চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দরে আজ থেকে চালু হচ্ছে ইলেকট্রনিক গেট। ই-পাসপোর্ট থাকলে ৩০ সেকেন্ডে দুইধাপে ইমিগ্রেশন শেষ হবে। বিমানবন্দরে বসানো ছয়টি ই-গেইটের -মাধ্যমে ইমিগ্রেশন প্রক্রিয়া ভ্রমণ সংক্রান্ত নথি যাচাইয়ের সময় উচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে বলে মনে করছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। দুই বছর আগে চালু হয় ই-পাসপোর্ট সেবা। গত ৭ জুন ঢাকা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ১২টি ই-গেট বসানো হয়েছিল।

এর ছয় মাস পর শাহ আমানতে ৬টি ই-গেট বসানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। গতকাল সন্ধ্যায় বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ মাহবুব আলী আনুষ্ঠানিকভাবে গেটগুলো উদ্বোধন করেন। বিমানবন্দর সূত্রে জানা গেছে, ই-গেট ব্যবহার করে আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্সের সহায়তায় যাত্রীর সব তথ্য যাছাই করে তাৎক্ষনিকভাবে ইমিগ্রেশন সম্পন্ন হবে। এ জন্য পাসপোর্টে কোন সীল দেয়ারও প্রয়োজন পড়বে না। তবে সাধারণ এমআরপি পাসপোর্টধারীরা এই সুবিধা পাবে না। ই-গেটের প্রবেশপথে ই পাসপোর্টে প্রথম পৃষ্ঠা যেখানে ছবি ও অন্যান্য তথ্য ও বারকোড রয়েছে সেই পৃষ্ঠাটি স্ক্যান করলে প্রথম ধাপ শেষ হবে। ক্যামেরাযুক্ত ফেসিয়াল রিকগনিশনের মাধ্যমে পাসপোর্টের ছবির সঙ্গে যাত্রীর তাৎক্ষণিক পাওয়া মুখমণ্ডল মিলে গেলে দ্বিতীয় গেটও খুলে যাবে।

শাহ আমানত বিমানবন্দরের পরিচালক উইং কমান্ডার তসলিম আহমেদ বলেন, অভিভাষণ প্রক্রিয়া দ্রুত শেষ করতে এবং যাত্রীদের ভোগান্তি দূর ও সময় বাঁচাতে এ সুবিধা চালু হচ্ছে। গতকাল সন্ধ্যায় ছয়টি ই-গেটের উদ্বোধন করা হয়েছে। এখন থেকে ইমিগ্রেশনের পুরো প্রক্রিয়াটি ৩০ সেকেন্ডের মধ্যে শেষ হবে। ই-পাসপোর্টে একটি মাইক্রোপ্রসেসর চিপ থাকে। এর মাধ্যমে ই-পাসপোর্ট স্ক্যান করার পর যাত্রীদের শনাক্ত করা সম্ভব হবে নিমিষেই।

comment / reply_from