• Thursday, 09 February 2023
কালিয়াকৈরে বোরো ধান রোপনে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে  কৃষকরা

কালিয়াকৈরে বোরো ধান রোপনে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে কৃষকরা

একে এম শিশির কালিয়াকৈর (গাজীপুর)সংবাদদাতা:

গাজীপুর কালিয়াকৈরে বোরো ধান রোপনে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে কৃষকরা। প্রচন্ড শীত ও ঘন কুয়াশা উপেক্ষা করে মাঠে কাজ করেযাচ্ছে তারা। এ বছর উপজেলায় ১০ হাজার ১০০ শ’ ৬৫হেক্টর জমিতে বোরো ধান আবাদ হয়েছে বলে কৃষি অফিসজানিয়েছেন উপজেলা কৃষি অফিস ৪ হাজার ২ শ'কৃষকে বিনামূল্যে উন্নতমানের বীজ ও সার কীটনাশক সহায়তা ও সুবিধাদিয়েছেন।তার মধ্য ২ হাজার ২ শ'কৃষক কে উফসী জাত ও ২ হাজার কৃষককে হাব্রিডের ভিবিন্ন জাতের বীজ দেওয়া হয়েছে। 

কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ৯টি  ইউনিয়নে বোরো রোপনের কাজ পুরোদমে এগিয়ে চলছে। এ বছর নতুন জাতেরধান ব্রি-৮৯ ও ব্রি-৮১, হাইব্রিড-১২০৩, বিনা-১০ ও বিনা-১৪ জাতের বীজ কৃষকদের বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়াও ব্রি-২৬, ২৮, ২৯ ব্রি হাইব্রিড, বিআর ৩, বিআর ১৪ জাতের ধান রোপন করছে কৃষকেরা।পুরাতন জাতের মধ্যে ব্রি-৩৯, ব্রি-২২ রয়েছে। এদিকেনানা সমস্যার মধ্যেও বোরো চারা রোপনের জন্য কোমর বেঁধে নেমে পড়েছেন কৃষকেরা। গভীর নলকুপের মাধ্যমে সেচ দিয়েবোরো রোপন করছে কৃষক। 

সরজমিনে দেখা যায়, এ এলাকার কৃষক এখন বোরো ধান রোপন নিয়ে সবাই ব্যস্ত সময় পার করছে।উপজেলার বড়ইবাড়ী,মকস বিল,গাবচালা,শৈলাখালি,মজিদচালা, বৈরাগীচালা,বাশতলি,গাবতলি,নামশুলাই,চাবাগান,অলিয়ারচালা,হাওরিয়াচালা,সাকশ্বর,ইতালিবাজার,হাটুরিয়াচালা,কোকিলা চালা সহ ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের বোরোর আবাদ করা হয়। তবে কৃষি উপকরণের দাম বাড়ারফলে চাষিরা ক্ষতির ভয়ে আবাদের পরিমাণ কমিয়ে দিয়েছেন। অপর দিকে ধানের দাম না থাকায় সবচেয়ে বিপাকে আছেনবর্গচাষিরা। 

উপজেলার চা-বাগান এলাকার কৃষক খালেক জানান,ধান চাষ এখন খুব জামেলার সব কিছুর দাম বেশী হওয়ায় ধান বুইনা  লাভ নাই তাও নিজে ঘরের ধানের ভাত খাওয়ার লাইগা ৩ তিন বিঘা জমিতে ধান বুনতাছি।বর্তমানে কামলার রোজও ৭শ' থেকে ৮ শ টাকা এই অবস্থা থাকলে ধান চাষ বাদ দেওন লাগবো।

উপজেলার গাবচালা গ্রামের কৃষক এমদাদুল হক  জানান, গত বোরো মৌসুমে উচ্চ ফলনসীল ব্রি-২৮, ২৯, হাইব্রিড,জাতেরধানের ফলন ও বাজারমূল্য ভালো পাওয়ায় চলতি বোরো মৌসুমে আবাদ করতে তারা বেশি আগ্রহী।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. সাইফুলা ইসলাম জানান, আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে চলতি বোরো মৌসুমে এ উপজেলায় ১০হাজার ১০০ শ’ ৬৫হেক্টর জমিতে বোরো ধান আবাদ হয়েছে । উপজেলা কৃষি অফিস ৪ হাজার ২ শ'কৃষকে বিনামূল্যেউন্নতমানের বীজ ও সার কীটনাশক সহায়তা ও সুবিধা দিয়েছি।তার মধ্য ২ হাজার ২ শ'কৃষক কে উফসী জাত ও ২ হাজারকৃষককে হাব্রিডের ভিবিন্ন জাতের বীজ দেওয়া হয়েছে। 

comment / reply_from