• Tuesday, 31 January 2023
উজিরপুরে আ’লীগ সভাপতি জামাল হোসেনকে দলীয় পদথেকে সরানোর জন্য কথিত ধর্ষণ নাটক

উজিরপুরে আ’লীগ সভাপতি জামাল হোসেনকে দলীয় পদথেকে সরানোর জন্য কথিত ধর্ষণ নাটক

উজিরপুরে আ’লীগ সভাপতি জামাল হোসেনকে
দলীয় পদথেকে সরানোর জন্য ধর্ষণ নাটক

 

 রবিউল ইসলাম,উজিরপুর প্রতিনিধি.

কথিত ধর্ষণ চেষ্টাকে পুজি করে উজিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এসএম জামাল হোসেনকে দলীয় পদ থেকে পদচ্যুত করতে মাঠে নেমেছে একটি চক্র। ঘটনাটিকে মিডিয়ায়
ছড়িয়ে দিয়ে রাজনৈতিক ফাঁয়দা লোটার চেষ্টা চালায় ওই চক্রটি। উজিরপুরের আওয়ামীলীগের বর্ষিয়ান
রাজনৈতিক নেতা এস.এম জামাল হোসেন দীর্ঘদিন ধরে উপজেলা আওয়ামীলীগের শীর্ষ পদে থেকে দলের নেতৃত্ব দিয়ে আসছে সুনামের সাথে। তাকে হয়রানী ও সাইজ করার উদ্দেশ্যে এক নারীকে ব্যবহারের চেষ্টা করা হয়েছে। ওই চক্রটি তাকে (জামাল স্যারকে) ফাঁসানো ও চরিত্র হনন করার জন্য উজিরপুর পৌর এলাকার ৭ নং

ওয়ার্ডের বাসিন্দা কাওসার হোসেনের স্ত্রী মরিয়ম বেগমের একটি ভিডিও তৈরী করে। জামাল হেসেনকে
সায়েস্তা করার জন্য তারা নয়া মিশনে নেমেছিলেন। কিন্তু মরিয়ম বেগম লিখিত ভাবে সাংবাদিকদের
জানিয়েছেন, গত ৯ নভেম্বর একটি মহল তাকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে এস.এম জামাল হোসেনের বিরুদ্ধে অনৈতিক কথা বলতে বাধ্য করেছেন।

ওই চক্রটি তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও মিডিয়ায় প্রচার করলে তিনি নিজেই অবাক হয়ে পড়েন। ১৩ নভেম্বর রোববার বিকেলে লিখিত বক্তব্যে মরিয়ম বেগম উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এস,এম জামাল হোসেনকে বাবার মত বলে সম্বোধন করেন। তার (জামাল স্যার) বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ নেই। তাকে ব্যবহার করে একটি মহল রাজনৈতিকভাবে ফায়দা নেয়ার চেষ্টা করছেন
বলেও তিনি অভিযোগ করেন। ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ রিপন মোল্লা জানিয়েছেন, তার এলাকায় নারীকেলেংকারির কোন ঘটনা ঘটেনি। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে ঘটনাটি ছড়ানো হয়েছে
তার কোন সত্যতা নেই।

এদিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এস,এম জামাল হোসেনের বিরুদ্ধে নারীকে হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করে ষড়যন্ত্রর ঘটনায় উপজেলা আওয়ামীলীগ ও তার সহযোগী সংগঠনের
নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। দলের নেতাকর্মীরা বলেন জামাল স্যারের পরিবার উজিরপুর
উপজেলার মধ্যে সম্মানিত ও শিক্ষিত পরিবার। তিনি একজন রাজনৈতিক নেতা। তার হাতে আওয়ামীলীগ নিরাপদ, সে কারণে তার সম্মান ক্ষুন্ন করতে একটি দূর্বৃত্ত চক্র নারী দিয়ে জামাল হোসেনের সম্মান হানি করে রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে চেয়েছিলো।

comment / reply_from