• Friday, 27 January 2023

আইএমএফ কঠিন কোনো শর্ত দেয়নি: পরিকল্পনামন্ত্রী

আইএমএফ কঠিন কোনো শর্ত দেয়নি: পরিকল্পনামন্ত্রী

দেশের প্রয়োজনে ও জনগণের প্রয়োজনে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল থেকে বাংলাদেশ আরো ঋণ পাবে বলে প্রত্যাশা করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। তিনি (এম এ মান্নান) বলেছেন, ‘আমরা চাই না ঋণ নিতে, তবে, প্রয়োজন হলে আমরা আরো ঋণ পাবো। বিশ্ব পরিস্থিতির জন্যই এই ঋণ নিতে হয়েছে। সদস্য রাষ্ট্র হিসেবে আমরা প্রয়োজন অনুযায়ী তাদের কাছে আরও ঋণ নিতে পারবো।’

আজ ১০ নভেম্বর বৃহস্পতিবার রাজধানীর ফার্মগেইট এলাকার ডেইলি স্টার কার্যালয়ে প্রতিবন্ধী নারীদের প্রতি নির্যাতন এবং সহিংসতা প্রতিরোধ বিষয়ক আলোচনা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের তিনি এসব কথা বলেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘আমি যতটুকু জেনেছি এমন কোনো কঠিন শর্ত তারা দেয়নি যেটা মানা সম্ভব হবে না। এই শর্তের কথাও আমরাও বলি। আমাদের বেশ কিছু সংস্কারের প্রয়োজন আছে বিশেষ করে আর্থিকখাতে আমরা বলি আসছি। আমরা হুট করেই এই সংস্কার করতে পারছি না। তবে আইএমএফ এর লক্ষ্য আমাদের লক্ষ্য একটাই। এখানে চ্যালেঞ্জ একটাই যদি আমরা কাজ ঠিক না করি সেটাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘কোনো ঋণই পর্যাপ্ত নয় কারণ, যদি সে ঋণ প্রয়োজনের তুলনায় কম হয়। আইএমএফ এর ঋণ প্রয়োজনের তুলনায় পর্যাপ্ত মনে করেই তো অর্থ মন্ত্রণালয় এই ঋণ চেয়েছে। যদি আরো এক বছর চলমান অবস্থা যদি চলতে থাকে তাহলে হয়তো বা আমাদের আরো ঋণ নিতে হতে পারে।’

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘প্রথম বিষয়টি হলো এই ঋণের বিষয়ে যখন থেকে প্রক্রিয়া শুরু হয় তখন থেকে আমার মনে কোনো সংশয় ছিল না। কারণ এই ঋণ আমরা পাব। আমি যে সকল কথাবার্তা শুনছিলাম আইএমএফের বিভিন্ন বক্তব্যে বা কাজে আমার পুরো আত্মবিশ্বাস ছিল- এই ঋণ আমরা পাব। ইতিমধ্যে মাননীয় অর্থমন্ত্রী পরিস্কারভাবে বলেদিয়েছেন যে তারা (আইএমএফ) এটা সরকারিভাবে জানিয়েছে যে তারা এটা দেবে। এখন তাদের কিছু ঘরের কাজ বাকি আছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘সাড়ে ৪ বিলিয়ন ডলার আমাদের অর্থ মন্ত্রণালয়ই তো চেয়েছে। এবং সেটা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এটা অনুমোদিত হয়েছে এটাকে কাজে লাগাব। আমাদের কাজ হচ্ছে তাদের ঋণের অর্থগুলোকে যথাযথভাবে কাজে লাগানো। এবং ঋণের অর্থ যথা সময়ে পরিশোধ করা এখানে আমাদের অতীত রেকর্ড ভালো, এখনও ভালো।’

comment / reply_from