হরিণাকুন্ডতে বিভিন্ন অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা

129

সবুজ শাহরিয়ার, হরিনাকুন্ডু (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি:আইন মেনে চালাবো গাড়ি,নিরাপদে ফিরবো বাড়ি। ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুণ্ডু উপজেলাতে করোনা মহামারিতেও থেমে নেই ভ্রাম্যমাণ আদালত। প্রতি নিয়তই উপজেলার লালন সড়কের বিভিন্ন স্থানে সড়ক নিরাপদ আইনে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দা নাফিস সুলতানা। 

সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার হল বাজার, হাসপাতাল মোড়ে মাস্ক পরিধান না করাসহ হেলমেট ও লাইসেন্সবিহীন মোটরযান চালনার অপরাধে মোবাইল কোর্টের অভিযান পরিচালিত হয়। ঠিক ঠাক কাগজপত্র থাকলে রেহায় পান, না হলে গুনতে হয়েছে জরিমানায়।

১৮৬০ এর  বাংলাদেশ সড়ক পরিহন আইনে ২৬৯ ধারায় আইন ভঙ্গ করে হেলমেট বা ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া বাইক চালালে গুনতে হয়েছে জরিমানা। তাছাড়া জনসাধারণকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার পাশাপাশি মাস্ক পরিধানে উদ্বুদ্ধ করতে আহবান জানান তিনি।

সরকারী বিধিনিষেধ অমান্য করে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রাখা সহ মাস্ক পরিধান না এবং হেলমেট বা ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালানোর অপরাধে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে কয়েকটি মামলার বিপরীতে ৩১০০/- (তিন হাজার একশত) টাকা অর্থদন্ড প্রদান করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। 

এসময় নির্বাহী  ম্যাজিস্ট্রেট এর সাথে ছিলেন নির্বাহী অফিসারের অফিস সহকারী আসাদুল ইসলাম।ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা কাজে এসআই মহসিন এর নেতৃত্বে হরিণাকুণ্ডু থানা পুলিশ সহযোগিতা করে।