সৈয়দপুরে ইতিবাচক উন্নয়নে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে : রংপুর বিভাগীয় কমিশনার

67

আমিরুল হক, স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী : নবাগত রংপুর বিভাগীয় কমিশনার মো. সাবিরুল ইসলাম বলেছেন নীলফামারীর সৈয়দপুরে ইতিবাচক উন্নয়নে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। কারণ সৈয়দপুর হল আটটি জেলার প্রবেশদ্বার। এই আটটি জেলার মানুষেরা সৈয়দপুর হয়ে যাতায়াত করেন। গত রোববার দুপুর উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত উপজেলা পরিষদের হলরুমে অনুষ্ঠিত প্রশাসনের কর্মকতা, জনপ্রতিনিধি ও সুধীজনের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বিভাগীয় কমিশনার আরও বলেন, আমি এ বিভাগের দায়িত্বে আসার আগেই সৈয়দপুর বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে জেনে এসেছি। সৈয়দপুর বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক মানের বিমানবন্দরে পরিণত করতে বর্তমানে যে বাধা রয়েছে, দেশের সর্ববৃহৎ সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানায় ট্রেনের বগিনির্মাণে জনবল সংকটসহ যে সকল সম্যসা রয়েছে তা দ্রুত সময়ে সমাধানের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে তুলে ধরা হবে।

বিভাগীয় কমিশনার মো. সাবিরুল ইসলাম আরো বলেন, সব সমস্যা ঢাকা বা কেন্দ্রীয়ভাবে সমাধান করা সম্ভব নয়। স্মৃতিসৌধ, কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, যানজট, শহররক্ষা বাধ, ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়নসহ অন্যান্য সমস্যাগুলো স্থানীয়ভাবে সমাধানের উদ্যোগ নিতে হবে। এ জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তাদের পাশাপাশি এ অঞ্চলের রাজনৈতিক ব্যক্তি ও জনপ্রতিনধিদের সদিচ্ছা নিয়ে এগিয়ে আসা জরুরি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামীম হুসাইনের সভাপতিত্ব ও সঞ্চালনায় এ মতবিনিময় সভায় জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, স্থানীয় বিশিষ্ট ব্যক্তিরাসহ উপজেলা প্রশাসনের সকল বিভাগের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
এ সময় আরও বক্তব্য দেন, জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য রাবেয়া আলীম, জেলা প্রশাসক খন্দকার ইয়াসির আরেফীন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোখছেদুল মোমিন, পৌরমেয়র রাফিকা আকতার জাহান, সৈয়দপুর সরকারি বিজ্ঞান কলেজের অধ্যক্ষ গোলাম ফারুক আহমেদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্পাদক মহসিনুল হক, পৌর আওয়ামীলীগের সম্পাদক মোজাম্মেল হক, কামারপুকুর ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, বাঙ্গালীপুর ইউপি চেয়াম্যান ডাঃ শাহাজাদা সরকার, বোতলাগাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান জুন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আলেমুল বাশার সাংবাদিক এম আর আলম ঝন্টু প্রমূখ। এর আগে পৌরসভা কার্যালয়, নির্মাণাধীন স্মৃতিসৌধ, ডায়াবেটিক হাসপাতাল ও ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরিদর্শণ করেন বিভাগীয় কমিশনার মো. সাবিরুল ইসলাম।