সালথায় গাছে গাছে শোভা পাচ্ছে আমের মুকুল

107

সালথা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি : ‘আয় ছেলেরা, আয় মেয়েরা ফুল তুলিতে যাই, ফুলের মালা গলায় দিয়ে মামার বাড়ে যাই। ঝড়ের দিনে মামার দেশে আম কুড়াতে সুখ, পাকা জামের মধুর রসে রঙিন করি মুখ। পল্লীকবি জসীম উদ্দিনের ‘মামার বাড়িথ কবিতার পংক্তিগুলো বাস্তব রূপ পেতে বাকি রয়েছে আর মাত্র কয়েক মাস। তবে সুখের ঘ্রাণ বইতে শুরু করেছে। গাছে গাছে ফুটছে আমের মুকুল।

চারদিকে ছড়িয়ে পড়ছে এই মুকুলের পাগল করা ঘ্রাণ। সালথায় গাছে গাছে শোভা পাচ্ছে আমের মুকুল। আম গাছ পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছে চাষিরা। মধুমাস ঋতুরাজ বসন্ত আসার আগাম বার্তা নিয়ে আসে আম গাছের মুকুল। এছাড়াও বসন্তকাল আসার আগমনে প্রায় প্রতিটি গাছে গাছে আসে ফুল। তখন চারদিক যেন মৌ মৌ গন্ধে মুখরিত হয়ে ওঠে। ফরিদপুরের সালথা উপজেলার প্রতিটি বাড়ি ও আম বাগানে এখন শোভা পাচ্ছে আমের মুকুল।

সালথা উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, আমের মুকুলে ঘুরে বেড়াচ্ছে মৌমাছির দল। আম গাছ পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছে চাষিরা। গাছে সেচ দেওয়াসহ আমের মুকুলে রোগবালাই দমনে বিভিন্ন কীটনাশক স্প্রে করছেন তারা। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এ বছর আমের ভালো ফলন হবে বলে আশা বাগান মালিকদের।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জীবাংশু দাস জানান, সময় মতো সামান্য বৃষ্টি হওয়া ও ঘন কুয়াশা না থাকা এবং আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এ বছর আমের ভালো ফলন হবে। আম চাষে উৎসাহিত করতে এলাকায় তাদের পরামর্শ ও সার্বিক সহযোগিতা করে যাচ্ছে উপজেলা কৃষি অফিস। এসময় তিনি আম গাছে ছত্রাক অথবা পোকামাকড় জনিত সম্যার জন্য তার সাথে যোগাযোগ করতে বলেন।