শ্রীনগরে অসময়ে বৃষ্টি, বাড়ছে শীতের তীব্রতা 

75

মোঃ রুবেল ইসলাম তাহমিদ, শ্রীনগর মুন্সীগঞ্জ : মুন্সীগঞ্জ শ্রীনগর উপজেলায় শুক্রবার সকাল থেকেই হঠাৎ কখনো মুষলধারে কখনো গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত,  বৃষ্টি  ও  শীত দিনব্যাপী হওয়ার কারণে বোঝার উপায় নেই এটা শীত না বর্ষাকাল। মাঘের শীত আষাঢ়ের মতো টানা বৃষ্টিতে জনজীবনে ভোগান্তি দেখা দিয়েছে।

শুক্রবার (৪ ফেব্রুয়ারী) সকাল সাড়ে ৮টার পর থেকে হঠাৎ আকাশ মেঘলা হয়ে দমকা হাওয়ার সাথে বৃষ্টি নামে পুরো শ্রীনগর উপজেলা জুড়ে। ফলে যারা সকালে বিভিন্ন কাজের উদ্দেশ্যে বাসা থেকে বের হয়েছিলো তারা এক রকম বাঁধার সম্মুখীন হয়ে বিভিন্ন দোকান, হোটেল, যাত্রী ছাউনির নিচেই দিন পার করে দিয়েছেন।যেভাবে শ্রাবণের মতো বর্ষণ হচ্ছে তাতে  মুন্সীগঞ্জের তিন টি গুরুত্ব পুর্ন উপজেলায়  আলু, পেঁয়াজ, সরিষা, কলাইসহ তৈল জাতীয় শস্যের ক্ষতি আসংখ্যা এবং সবজি চাষিরাও ক্ষতির মুখে পড়বে।  এদিকে টানা বৃষ্টিতে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত হয়েছে। বিপাকে পড়েছেন দিনমজুর রিকশাচালক, অটোচালক, ভ্যানচালকনহ নিম্নআয়ের মানুষরা।

মহাসড়কেও স্বাভাবিকের চেয়ে যানবাহন চলছে কম, বাড়ছে শীতও । ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চালক কবির মিয়া বলেন, বৃষ্টির মধ্যেই অটো নিয়ে বের হয়েছিলাম। যাত্রী নাই কিন্তু রাস্তায় যানবাহন ও মানুষ দুটোই কম তাই চলে যাচ্ছি। জাকির হোসেন বলেন, রোপা আমনের ভরা মৌসুমে কাজে যেতে পারলাম না। মাঘ মাসে এমন বৃষ্টি কোনোদিন দেহি নাই। বৃষ্টি কয়দিন থাকবে তা আল্লাহই জানে। শ্রীনগর উপজেলার কৃষক রমিজুল ইসলাম বলেন, আমার জমিতে গেল তিন মাস হয় হঠাৎ বৃষ্টি নামে তাতে আলু, পেঁয়াজের আবাদি ফসলের ক্ষতি হয়, ফের  ধার দেনা করে আবাদ করি । শুক্রবার ফের হঠাৎ বৃষ্টি নামতে শুরু হয়েছে এভাবে দুই চারদিন বৃষ্টি থাকলে সরিষা, কলাই, আলু, পেঁয়াজের আবাদি ফসলের ক্ষতি আবার হবে। এবার ধার দেনার টাকা কি ভাবে পরিশোধ করবো ।