শিবপুরে ছেলে ও নাতির হাতে বৃদ্ধের নির্মম মৃত্যু

117
শিবপুরে ছেলে ও নাতির হাতে বৃদ্ধের নির্মম মৃত্যু
শিবপুরে ছেলে ও নাতির হাতে বৃদ্ধের নির্মম মৃত্যু

ইলিয়াছ হায়দার, নরসিংদীর প্রতিনিধি : নরসিংদীর শিবপুরে ছেলে ও নাতির পিটুনিতে আহত জোহর আলী ভূঁইয়া (৯০) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ২৭ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃদ্ধের মৃত্যু হয়।

জোহর আলী শিবপুর উপজেলার জয়নগর ইউনিয়নের বেতাগিয়া গ্রামের বাসিন্দা। অভিযুক্তরা হলেন- বৃদ্ধের ছেলে জসিম মিয়া (৫০) ও নাতি মো. নাহিদ মিয়া (২৫)। এলাকাবাসী ও স্বজনদের অনেকে অভিযোগ, বৃদ্ধ জোহর আলীর চুল বড় রাখা ও পারিবারিক কলহকে কেন্দ্র করে গত শুক্রবার দুপুরে তার সঙ্গে তা ছেলে ও নাতির কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে নাহিদ তার দাদাকে কাঠের চেয়ার দিয়ে তলপেটে বেশ কয়েকবার আঘাত করেন।

পেটানোর সময় নাহিদকে সাহায্য করেন তার বাবা জসিম। এতে ওই বৃদ্ধ গুরুতর আহত হলে তাকে প্রথমে শিবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়।
অবস্থার অবনতি হলে তাকে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যান স্বজনরা। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার বিকেলে তার মৃত্যু হয়। জয়নগর ইউপি চেয়ারম্যান নাদিম সরকার বলেন, ওই বৃদ্ধ বার্ধক্যজনিত নানা সমস্যায় ভুগছিলেন। এর মধ্যে কয়েকদিন আগে পারিবারিক কলহের জেরে ছেলে ও নাতির পিটুনিতে গুরুতর আহত হন। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন বলে শুনেছি।

শিবপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সালাহ উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।শিবপুরে নাতি ও ছেলের পিটুনিতে দাদা নিহত। মেয়ে নূরজাহান বেগম দু জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন ।
শিবপুর মডেল থানা মামলা নং ১৫। এসআই মাহবুব বলেন, অভিযুক্ত নাহিদ ভূঁইয়া পলাতক। তাঁকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।