লোহাগড়ায় দুই স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষকের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন

89
লোহাগড়ায় দুই স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষকের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন
লোহাগড়ায় দুই স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষকের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন

মোঃ আলমগীর হোসেন, লোহাগড়া (নড়াইল) সংবাদদাতা ঃ নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ইতনা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম ও ৪র্থ শ্রেনীর ছাত্রীকে ধর্ষনের প্রতিবাদে ও ধর্ষককে দ্রুত আটক ও ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা, শিক্ষক-শিক্ষিকাবৃন্দ ও এলাকাবাসী । বুধবার(১৮ মে)

দুপুরে বিদ্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ পালিত হয়। মানববন্ধনে বিদ্যালয়ের শত শত শিক্ষার্থী ও শিক্ষক-শিক্ষিকারা ও এরকাবাসী অংশগ্রহন করেন ।

এ মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নায়ার সুলতানা, সহঃ শিক্ষক মোসাঃ সেলিনা পারভিন, শেখ মোঃ সোহেল রানা, মোঃ হাবিবউল্লাহ প্রমুখ । বক্তরা ধর্ষক জাহিদ শেখকে দ্রুত আটক করে দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তি ও ফাসিঁর দাবী জানান, যাহাতে ভবিষ্যাতে এধরনের জঘন্য কাজ কেউ করতে সাহস না পায়।

মামলার বিবারনে জানা গেছে, গত সোমবার আনুমানিক বিকাল ৪ টার দিকে উপজেলার ইতনা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেনীর (১০) ও তার বান্ধবী ৪র্থ শ্রেনীর ছাত্রীকে(৯) তাদের বাড়ির পাশে প্রতিবেশী চাচা ইতনা দক্ষীনপাড়ার মৃত আবুল হোসেনের ছেলে লম্পট জাহিদ শেখ(৬০) ওই দুইজন ছাত্রীকে লেবু খাওয়ার প্রলোভন

দেখিয়ে তার নিজ ঘরে ডেকে নিয়ে দরজা বন্ধ করে দেয়। এসময় ওই শিশুদের ধারালো অস্ত্রে ভয় দেখিয়ে ৫ম শ্রেনীর ছাত্রীকে জোর পুর্বক ধর্ষণ করে পরে ৪র্থ শ্রেনীর ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে ব্যার্থ হয়। এসময় ৫ম শ্রেনীর চাচী তাদের চিৎকার শুনে এগিয়ে গেলে ধর্ষক পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ৫ম শ্রেনীর মাতা মিতা বেগম বাদী হয়ে

ধর্ষক জাহিদ শেখকে আসামী করে লোহাগড়া থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-১২,তাং-১৭/০৫/২২। গ্রামবাসীরা জানায় , ধর্ষক লম্পট জাহিদ শেখ ৬/৭টা বিয়ে

করেছে এবং ৪ টা স্ত্রী তার ঘরে আছে। ধর্ষক লম্পট জাহিদ শেখের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে পাওয়া যায়নি। লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আবু হেনা মিলন বলেন, ধর্ষনের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে, ধর্ষিতাদের ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে এবং ধর্ষক জাহিদ শেখকে আটকের চেষ্টা চলছে।