মৎস্যজীবী পরিবারের মাঝে ছাগল ও মাছের খাবার বিতরণ

74
মৎস্যজীবী পরিবারের মাঝে ছাগল ও মাছের খাবার বিতরণ
মৎস্যজীবী পরিবারের মাঝে ছাগল ও মাছের খাবার বিতরণ

মোঃ ইমরান ইসলাম,নিয়ামতপুর(নওগাঁ)প্রতিনিধিঃ নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলায় দরিদ্র জেলেদের বিকল্প আয়বর্ধক কর্মসূচীর উপকরণ হিসেবে ১৫টি পরিবারের মাঝে ৪ টি করে মোট ৬০ টি ছাগল ও ৪৩ জন মৎস্যচাষীদের মাঝে ২২৫ কেজি করে মোট ৯৬৭৫ কেজি মাছের খাদ্য বিতরণ করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার (২১ জুন) জেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে ২০২১-২২ অর্থ বছরে রাজশাহী বিভাগে মৎস্য সম্পদ উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় উপজেলার দরিদ্র জেলেদের বিকল্প আয়বর্ধক কর্মসূচীর উপকরণ হিসেবে ৬০টি ছাগল এবং ন্যাশনাল এগ্রিকালচারাল টেকনোলজি প্রোগ্রাম ফেজ- প্রকল্পের আওতায় ৪৩টি মৎস্য চাষ প্রদর্শনী ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী মৎস্য খামারীদের মাঝে প্রদর্শনীর উপকরণ বিতরণ হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও)আব্দুল্লাহ আল মামুনের সভাপতিত্বে ও উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আইয়ূব আলীর সঞ্চালনায় বিতরণীয় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, খাদ্যমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, বছরের নির্দিষ্ট একটা সময় জেলেরা মাছ ধরতে পারে না। তখন তাদের আয় রোজগার থাকে না। প্রধানমন্ত্রী তাদের কথা চিন্তা করে বিকল্প আয়ের জন্য এসব ছাগল দিচ্ছেন। যাতে করে ছাগলগুলো পালন করে তারা যেন আয় বাড়াতে পারে। পর্যায়ক্রমে সকল মৎস্যজীবী পরিবারকে বিকল্প কর্মসংস্থানের আওতায় আনা হবে। মন্ত্রী আরোও বলেন, বরেন্দ্রভূমিতে ছাগল পালনের ব্যাপক সুযোগ রয়েছে। এখানে পর্যাপ্ত জায়গা ও ঘাসের ব্যবস্থা থাকে। আপনারা যত্ন করে ছাগলগুলো লালন-পালন করবেন। আজ ছাগলগুলো পেয়ে কদিন পর যেন হাটে বিক্রি করবেন না। এতে করে আপনারা স্বাবলম্বী হতে পারবেন।

এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদ আহমেদ, ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আইয়ুব হোসাইন মন্ডল, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাদিরা বেগম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আবুল কালাম আজাদ, সাধারণ সম্পাদক জাহিদ হাসান বিপ্লব, রসুলপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোত্তালেব হোসেন বাবর, উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জনি আহমেদ প্রমুখ।