মাহাথির মোহাম্মদ সুস্থ আছেন

175

এম এ আবির,মালয়েশিয়া প্রতিনিধি, গতকাল সকাল থেকে   হঠাৎ করে  অনলাইন মিডিয়ায় মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী ডাঃ তুন মাহাথির মোহাম্মদ মারা গেছেন বলে বিভিন্ন ফেইসবুক আইডি,গ্রুপ, হোয়াটসঅ্যাপে ভাইরাল হয়েছে। একে একে আন্তর্জাতিক অনলাইন ফ্লাটফর্মে ও নিজ নিজ দেশের ভাষায় ট্রান্সলেট হয়ে ভাইরাল হয়েছে মৃত্যুর গুজব খবর। 

মৃত্যুর  খবর ছড়ানোর পর একে একে সকল গণমাধ্যম কর্মী জরো হতে থাকে হসপিটালের ফটকে। পরবর্তীতে হসপিটাল ও পরিবারের পক্ষ থেকে আশস্ত করা হয় মাহাথির মোহাম্মদ সুস্থ আছেন।

পরে বিকেলে মাহাথির মোহাম্মদের পরিবারের পক্ষ থেকে মেয়ে মারিনা মাহাথির প্রেস বিজ্ঞপ্তি দেয়। মাহাথির মোহাম্মদ এর অফিসিয়াল পেইজে সন্ধ্যা ৭ টা এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। 
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আজ তুন ডাঃ মাহাথির বিন  মোহাম্মদের স্বাস্থ্যের উন্নতি হয়েছে। আগের চেয়ে শারীরিক অবস্থা ভাল। খাবার খেয়েছে নিয়মিত। এবং ন্যাশনাল হার্ট ইনস্টিটিউট ( আইজেএন) তার পাশে থাকা পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ভালো সময় কাটিয়েছে। তুন ডাঃ মাহাথির কে  বিদেশি নেতা এবং জনসাধারণ সহ অনেকেই শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। যাহারা মাহাথির দ্রুত সুস্থতা কামনার জন্য দোয়া করেছেন  তাদের সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তুন মাহাথির। এবং তিনি জনসাধারণ কে তাহার শারীরিক অবস্থা নিয়ে খুব বেশি উদ্বীগ্ন না হওয়ার আহবান জানিয়েছেন। 

তুন ডাঃ মাহাথির নিজ দেশে  স্থানীয় বিশেষজ্ঞদের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা চালিয়ে যাবেন। আপাতত হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ( আইজেএন)  মাহাথির মোহাম্মদের সাথে সাক্ষাৎতের জন্য পরিবার ছাড়া অন্য কোন সদস্যদের সাক্ষাৎতের অনুমতি দেয় না।


গত ৮ জানুয়ারি হৃদযন্ত্রে সমস্যা নিয়ে দেশটির ন্যাশনাল হার্ট ইনস্টিটিউট (আইজেএন) হাসপাতালে ভর্তি হন সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর ১১ দিন সাধারণ কেবিনে রাখা হলেও গত ১৯ জানুয়ারি তাকে স্থানান্তর করা হয় করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ)।


মঙ্গলবার আইজেএন হাসপাতাল থেকে মাহাথিরের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানানো হয়নি। যে কারণে ৯৬ বছর বয়স্ক এই বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ মারা গেছেন—এমন গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে মালয়েশিয়ায়।


তবে রোববার (২৩ জানুয়ারি) এক বিবৃতিতে মাহাথিরের মেয়ে এবং জ্যেষ্ঠ সন্তান মেরিনা মাহাথির বলেন, তার বাবা চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন এবং পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলতে পারছেন।


মানুষকে গুজব না ছড়ানোর অনুরোধ জানিয়ে বিবৃতিতে মেরিনা আরও বলেন, ‘সূত্র যাচাই-বাছাই না করে বাবার শারীরিক অবস্থা নিয়ে কোনও ধরনের গুজব ছড়াবেন না। মাহাথির মোহাম্মদের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে সময়ে সময়ে ন্যাশনাল হার্ট ইনস্টিটিউট এবং  পরিবার বিবৃতি দেবে।


আন্তর্জাতিক ভাবে  রাষ্ট্র প্রধান ও বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতাদের  পক্ষ হইতে শুভেচ্ছা বার্তা পেয়েছি এবং পাশাপাশি শোকবার্তা ও পেয়েছি। গুজবে কান না দিয়ে বাবার জন্য দোয়া করবেন। বাবা যেন সুস্থ হয়ে আবার আপনারদের মাঝে ফিরে আসতে পারে।