মাগুরায় অধিপত্য বিস্তার নিয়ে দু’দল গ্রামবাসির মধ্যে সংঘর্ষে আহত ১৫

65
মাগুরায় অধিপত্য বিস্তার নিয়ে দু’দল গ্রামবাসির মধ্যে সংঘর্ষে আহত ১৫
মাগুরায় অধিপত্য বিস্তার নিয়ে দু’দল গ্রামবাসির মধ্যে সংঘর্ষে আহত ১৫

মোঃ ইউনুস আলী,মাগুরা বিশেষ প্রতিনিধি : মাগুরা সদরের বাহারবাগ গ্রামে গত ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দু’দল গ্রামবাসীদের মধ্যে পৃথক সংঘর্ষে ১৫ জন আহত,প্রায় অর্ধশত বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে।

মাগুরা সদর উপজেলার বাহারবাগ গ্রামে গত ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বর্তমান চেয়ারম্যান নাসিরুল ইসলাম মিলন মোল্যা ও সাবেক চেয়ারম্যান রাজিব বিশ্বাসের সমর্থকদের মধ্যে দ্বন্দ চলে আসছিল। যা মাঝে মধ্যেই হামলা পালটা হামলার ঘটনা ঘটে।

মঙ্গলবার দুপুরে আমিনুর রহমান আমুড়িয়া বাজার থেকে নিজ বাড়িতে ফেরার পথে আবেদ আলি দাখিল মাদ্রাসার সামনে তাঁকে একা পেয়ে রাজিব চেয়ারম্যানের লোকজন পিটিয়ে তাকে আহত করে। এ সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে বিকালে মিলন চেয়ারম্যান গ্রুপের সমর্থকরা সাবেক চেয়ারম্যান লিয়াকত মুন্সী, সলিম সর্দার, তুহিনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে। এর জের ধরে বৃহস্পতিবার ভোরে মিলন গ্রুপের লোকজন অর্তকিত হামলা চালিয়ে বাদশা মিয়া, আনোয়ার হোসেন,

কাজল, ইমরান, মিজান, হারুন ও ইদ্রিসকে কুপিয়ে আহত করে। এর ধারাবাহিকতায় উভয় পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয় । পরবর্র্তীতে আহতদের মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে বাদশা ও আনোয়ারের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়া উভয় পক্ষের বাড়ি ঘরে ব্যাপক হামলা চালানো হয়েছে। হামলায় অর্ধশতাধিক বাড়ি ঘর কুপিয়ে ও ঘরের আসবাবপত্র ভাংচুর করা হয়েছে। গ্রামটি এখন পুরুষশূন্য হয়ে পড়েছে।

যে কোন অনাকাংখিত পরিস্থিতি এড়াতে এলাকায় অতিরক্তি পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

মাগুরা জরুরি বিভাগের চিকিৎসক কৃষ্ণ দাস জানান, বাহার বাগ এলাকায় মারামারি ঘটনায় ১২ জনকে আহত অবস্থায় চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। দুইজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য  ফরিদপুর প্রেরণ করা হয়েছে।