ভূমিমন্ত্রীর সাথে সুইস রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য সাক্ষাৎ

171
ভূমিমন্ত্রীর সাথে সুইস রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য সাক্ষাৎ
ভূমিমন্ত্রীর সাথে সুইস রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য সাক্ষাৎ

ভূমিসেবা ডিজিটাইজেশন কার্যক্রমের ভূয়সী প্রশংসা করলেন রাষ্ট্রদূত (ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২২) বাংলাদেশে নিযুক্ত সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি শিউআখ্ (Nathalie Chuard) আজ বৃহস্পতিবার সকালে ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরীর সাথে সচিবালয়ে তাঁর কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।

ভূমিমন্ত্রী ভূমি ব্যবস্থাপনা ডিজিটালাইজেশনে সরকারের বিভিন্ন পরিকল্পনার ব্যাপারে রাষ্ট্রদূতকে অবহিত করেন। এসময় ডিজিটাল ভূমিসেবা স্থাপনে সুইস সহায়তা প্রয়োজন হলে পূর্ণ সহযোগিতার আশ্বাস দেন রাষ্ট্রদূত।

বৈঠকে গৃহহীন ও ভূমিহীনদের মাঝে জমিসহ গৃহ প্রদান কার্যক্রম ও ভূমিসেবা ডিজিটালাইজেশন উদ্যোগ গ্রহণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বের ভূয়সী প্রশংসা করেন রাষ্ট্রদূত নাথালি শিউআখ্। রাষ্ট্রদূত বলেন, গৃহ প্রদানের মানবিক এই উদ্যোগ বাংলাদেশে দারিদ্র বিমোচনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

ভূমিমন্ত্রীর সাথে সুইস রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য সাক্ষাৎ

রাষ্ট্রদূত ভূমিমন্ত্রীকে আরও জানান ভূমিসেবা ডিজিটালাইজেশন কার্যক্রম বাংলাদেশে তথ্য অধিকার ও লৈঙ্গিক সমতা নিশ্চিত করতে এবং স্বচ্ছ, জবাবদিহি ও সর্বোপরি টেকসই সুশাসন নিশ্চিতকরণে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে বলে সুইস সরকার মনে করে। জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলা ও টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট অর্জনেও টেকসই ভূমি ব্যবস্থাপনা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে তিনি যোগ করেন। রাষ্ট্রদূত বলেন, “বাংলাদেশ সুইজারল্যান্ডের অন্যতম অগ্রাধিকার সহযোগী দেশ”।

ভূমিমন্ত্রী ২০২১ সালে বাংলাদেশের পুঁজি-বাজারের উপর সুইজারল্যান্ডে অনুষ্ঠিত বিনিয়োগ শীর্ষ সম্মেলনে সুইস আতিথেয়তার জন্য রাষ্ট্রদূতকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, সুইস সরকার, উদ্যোক্তা এবং বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উন্নয়ন সহযোগী। ভূমিমন্ত্রী এসময় দুই’দেশের মধ্যে কৌশলগত, বাণিজ্যিক ও বিশ্ব অংশীদারিত্বমূলক সম্পর্ককে আরও নিবিড় করার ব্যাপারে তাঁর দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এসময় দেশে স্থাপিত ১০০ টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে সুইজারল্যান্ডের বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগের আহবান জানান ভূমিমন্ত্রী।

আলোচনার এক পর্যায়ে পার্বত্য চট্টগ্রামকে সুইস রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশে অবস্থিত সুইজারল্যান্ডের নিকটতম সাদৃশ্যপূর্ণ প্রাকৃতিক সৌন্দর্য হিসেবে অবহিত করেন। সুইস রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎকারের সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে সুইস দূতাবাসের জুনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার জানা রোথলিসবার্গার (Jana Rothlisberger)।