ভারতকে হারিয়ে ‘প্রতিশোধ’ পাকিস্তানের

76
ভারতকে হারিয়ে ‘প্রতিশোধ’ পাকিস্তানের
ভারতকে হারিয়ে ‘প্রতিশোধ’ পাকিস্তানের

একেই বলে ভারত-পাকিস্তান লড়াই! শেষ ওভার পর্যন্ত বোঝা যাচ্ছিল না, কোন দল জিতবে। টানটান উত্তেজনার মধ্যে সেই থ্রিলারে এক বল বাকি থাকতে ভারতকে ডোবালো পাকিস্তান। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের কাছে গ্রুপপর্বে হার দিয়েই শুরু করেছিল এশিয়া কাপ। সুপার ফোরে যেন সেই হারের প্রতিশোধ নিয়ে নিলো বাবর আজমের ‍‍এই শক্তিশালী দলটি।

রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে শেষ ওভার পর্যন্ত জিইয়ে লড়াই চলছিল। এর জন্যই শেষ হাসি হাসে পাকিস্তান, এক বল আর ৫ উইকেট হাতে রেখেই জিতে নেন পাকিস্তান।

১৮২ রান তাড়া করতে নেমে শেষ দুই ওভারে পাকিস্তানের প্রয়োজন ছিল ২৬ রান। ১৯তম ওভারটি অভিজ্ঞ ভুবনেশ্বর কুমারের হাতে তুলে দেন। কিন্তু কাজের কাজ তিনি করতে পারেননি।

ভুবনেশ্বরের ওভারের ২য় বলে ৯৩ মিটার বড় এক ছক্কা হাঁকিয়ে দেন আসিফ আলি। ৪র্থ বলে খুশদিল শাহ আর শেষ বলে আসিফ হাঁকান আরেকটি বাউন্ডারি। যারফলে শেষ ওভারে মাত্র ৭ রান দরকার পড়ে পাকিস্তানের।

তবে ম্যাচটা যে ভারত-পাকিস্তানের! শেষ ওভারেও চলে কঠোর লড়াই। অর্শদীপ সিংয়ের করা ওভারে ২য় বলে আসিফ আলি বাউন্ডারি হাঁকালে ৪ বলে মাত্র ২ দরকার পড়ে পাকিস্তানের।

তাই পরের ২ বলে এক রানও নিতে পারে না পাকিস্তান। তবে আসিফ আলি ৮ বলে ১৬ পড়েন এলবিডব্লিউয়ের জটিল ফাঁদে। ২ বলে ২ প্রয়োজন পড়ে পাকিস্তানের। পুরো স্টেডিয়ামে তখন নীরবতা। যে কোনো কিছুই ঘটতে পারতো ‍এই ম্যাচে। নতুন ব্যাটার ইফতিখার আহমেদ ছিল স্ট্রাইকে।

তবে সব উত্তেজনার আগুনে পানি ঢেলে দিয়েছেন ইফতিখার। নিজের মোকাবেলা করা ১ম বলটিই সোজা উইকেটের দিক দিয়ে বাউন্ডারিতে পাঠিয়ে দেন তিনি। পাকিস্তান মাতে ‍আনন্দের উল্লাসে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ভারত : ২০ ওভারে ১৮১-৭, বিরাট কোহলি ৬০, লোকেশ রাহুল ২৮, রোহিত শর্মা ২৮; শাদাব খান ২-৩১, মোহাম্মদ নওয়াজ ১-২৫

পাকিস্তান: ১৯.৫ ওভারে ১৮২-৫ মোহাম্মদ রিজওয়ান ৭১, মোহাম্মদ নওয়াজ ৪২, আসিফ আলি ১৬; রবি বিষ্ণুই ১-২৬

ফলাফল: পাকিস্তান  জয়ী ৫ উইকেটে।

সেরা: মোহাম্মদ নওয়াজ ।