বৃদ্ধাশ্রমে মানবতায় হ্যালো সৈয়দপুর

85

আমিরুল হক,  নীলফামারী :এক মেয়ে থাকেন কানাডা, অন্য মেয়ে থাকেন ইতালি আর মা রয়েছেন বৃদ্ধাশ্রমে। পুত্রবধূর কাছে প্রহারিত হয়ে এক বৃদ্ধ রয়েছেন বৃদ্ধাশ্রমে। মেয়ে জামাইয়ের কাছে বোঝা হয়ে থাকতে চান না চাঁদপুরের অসুস্থ এক দম্পতি এসেছেন বৃদ্ধাশ্রমে।এরকম অনেক করুণ ঘটনার সাক্ষী হয়েছে আজ (২৯ জানুয়ারি) হ্যালো সৈয়দপুর টিম।
পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী কুয়াশা মাখা সকালে হ্যালো সৈয়দপুর টিম বৃদ্ধাশ্রমে থাকা প্রবীণ ব্যক্তিদের সাথে আনন্দ উদযাপন করতে রওনা দিয়েছে নীলফামারী জেলার কিশোরগঞ্জের নিরাপদ বৃদ্ধাশ্রমের উদ্দেশ্যে।পৌঁছানোর পর প্রথম শুরু হয় মতবিনিময় পালা এবং আনন্দ প্রদানের লক্ষ্যে ধাঁধা অনুষ্ঠান, সাথে ছিল পুরস্কার বিতরণ।

এদিকে দুপুরের খাবার তৈরি হচ্ছে বেশ উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে। রান্নায় অংশগ্রহণ করেছেন বৃদ্ধাশ্রমে থাকা প্রবীণ নারী-পুরুষ গণ।কেউবা রান্না করছেন, কেউ চুলায় আগুন দিচ্ছেন, আবার কাউকে দেখা গিয়েছে টমেটো শসা কাটা নিয়ে ব্যস্ত।এভাবেই তৈরি হয়েছিল দুপুরে সুস্বাদু চিকেন বিরিয়ানি।খাবার খেয়ে সবাই প্রশংসা করেছেন এবং হ্যালো সৈয়দপুর টিমের জন্য দোয়া করেছেন।

দুপুর গড়িয়ে বিকেল হয়ে যায়, শুরু হয় বিদায় লগ্ন। স্থানীয় বাজার থেকে হ্যালো সৈয়দপুর টিম শুকনা খাবার এবং কিছু ফলমূল ক্রয় করে প্যাকেট এর মাধ্যমে তুলে দেয়া হয় প্রত্যেকের হাতে।এভাবেই তাদের ক্ষনিকের আনন্দ দেওয়ার চেষ্টা করে টিমটি।প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক সাজেদুর রহমান সাজুর সাথে কথা বলে জানা যায়, একটি লাইব্রেরী করার স্বপ্ন দেখছেন। যাতে করে বৃদ্ধাশ্রমে থাকা প্রবীণ ব্যক্তিরা বই পড়ে সময় কাটাতে পারেন। অর্থনৈতিক সংকটের কারণে কাজটি থেমে আছে কিছু সহায়তা পেলে হয়তোবা কাজটি এগিয়ে নিতে পারবেন।