বিরামপুর সীমান্তে গোয়াল ঘর থেকে গাঁজা উদ্ধার, আটক ১

47
বিরামপুর সীমান্তে গোয়াল ঘর থেকে গাঁজা উদ্ধার, আটক ১
বিরামপুর সীমান্তে গোয়াল ঘর থেকে গাঁজা উদ্ধার, আটক ১

নূরে আলম সিদ্দিকী নূর, বিরামপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী এক গ্রামে থানা পুলিশের মাদকবিরোধী অভিযানে দশ কেজি গাঁজাসহ এলাকার চিহ্নিত মাদকব্যবসায়ী মনছুর আলী বল্টুকে (৪০) আটক করেছেন থানা পুলিশ। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন কুমার মহন্ত বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শনিবার রাত ১০টায় উপজেলার জোতবানী ইউনিয়নের দক্ষিণ জগন্নাথপুর নিশিবাপুর গ্রামে থানা পুলিশের দুটি পৃথক অভিযানে মাদকব্যবসায়ী বল্টু ও রুবেল (৩৪) এর বাড়ির গোয়াল ঘর ও শোবার ঘর থেকে এসব গাঁজা উদ্ধার করা হয়। আটক বল্টু ওই গ্রামের মৃত হরমুজ আলী সরকারের ছেলে। ঘটনার সময় থেকে মাদকব্যবসায়ী রুবেল পলাতক আছে বলে পুলিশ জানিয়েছেন।

থানাসূত্রে জানা যায়, শনিবার রাতে নিশিবাপুর গ্রামে মাদকব্যবসায়ী বল্টুর বাড়িতে মাদকের কারবার চলছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানার এসআই শাহিন শেখ এর নেতৃত্বে পুলিশের একটি চৌকস দল সেখানে অভিযান চালান। পরে বল্টুর বাড়ি তল্লাশি করে গোয়াল ঘরে খড়ের বস্তার মধ্যে বিশেষভাবে রাখা  পাঁচ কেজি গাঁজা উদ্ধার ও মাদকব্যবসায়ী বল্টুকে আটক করা হয়।

সেসময় বল্টুকে জিজ্ঞাসাবাদে তার দেয়া তথ্য ও দেখানো মতে প্রতিবেশি ও তার ব্যবসায়ীক পার্টনার নজির উদ্দিনের ছেলে রুবেল এর বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। রুবেলের বাড়িতে একটি ঘরে বস্তার মধ্যে লুকিয়ে রাখা আরও পাঁচ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। তবে এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে রুবেল পালিয়ে যায়।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন কুমার মহন্ত জানান, থানা পুলিশের মাদকবিরোধী অভিযানে গাঁজাসহ আটক মনছুর আলী বল্টুর বিরুদ্ধে রবিবার সকালে বিরামপুর থানায় ২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ৩৬(১) টেবিলের ১৯(খ)/৪১ ধারায় মামলা হয়েছে। আসামি বল্টুকে দিনাজপুর আদালতে পাঠানো প্রক্রিয়াধীন।

ওসি আরও জানান, ঘটনায় পলাতক আসামী রুবেলকে গ্রেপ্তার অভিযান চলছে। আর থানা পুলিশের মাদকবিরোধী অভিযান অব্যাহত থাকবে।