বানিয়াচংয়ে বৃদ্ধা মহিলা দূর্যোগ সহনীয় প্রকল্পের ঘরের পিলারের নীচে চাপা পড়ে মারা গেলেন

158
ঘরের পিলারের নীচে চাপা পড়ে মারা গেছেন সিরাপজান বিবি(৮৯) নামের এক বৃদ্ধা মহিলা।
ঘরের পিলারের নীচে চাপা পড়ে মারা গেছেন সিরাপজান বিবি(৮৯) নামের এক বৃদ্ধা মহিলা।

হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে দূর্যোগ সহনীয় বাসগৃহ প্রকল্পের ঘরের পিলারের নীচে চাপা পড়ে মারা গেছেন এক বৃদ্ধা মহিলা।
নিহতের নাম সিরাপজান বিবি(৮৯) তিনি মৃত নেয়ামত উল্লার স্ত্রী।

ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার(২৯ জানুয়ারী) দুপুর ৩টায় বানিয়াচং উপজেলার ৪ নম্বর দক্ষিন-পশ্চিম ইউনিয়নের মাদারীটুলা গ্রামে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরে টি আর/কাবিখা কর্মসূচীর আওতায় দূর্যোগ সহনীয় বাসগৃহ নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় বানিয়াচং উপজেলায় বেশকিছু ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হয়েছে। একেকটি ঘরের নির্মাণ ব্যায় ধরা হয়েছিলো ২লক্ষ ৯৯হাজার ৮৬০টাকা।

এরকমই একটি ঘর দেওয়া হয়েছিলো মাদারীটুলা গ্রামের নেয়ামত উল্লার পুত্র মোঃ শরীফ উল্লাহকে। শরীফ উল্লাহ স্ত্রী-সন্তান ও মা সিরাপজান বিবিকে নিয়ে বসবাস করতেন। ঘটনার সময় ঘরের সামনে বসে ছিলেন সিরাপজান বিবি এক পর্যায়ে ঘরের একটি পিলার ভেঙ্গে নিহতের উপর পড়ে গেলে তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান। নিহতের পরিবার তড়িঘড়ি লাশ দাফনের চেষ্টা করলে এলাকাবাসী বানিয়াচং থানাকে জানায়।

দূর্ঘটনার খবর পেয়ে বানিয়াচং সার্কেল পলাশ রঞ্জন দে ও বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ এমরান হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ রিপোর্ট লেখার সময় লাশের ময়নাতদন্তের জন্য প্রস্তুতি চলছে। বানিয়াচং উপজেলা পরিষদের নাম প্রকাশে একজন কর্মচারী জানান,এই প্রকল্পের ঘর ২০১৯-২০২০ সালে নির্মাণ করা হয়েছে। ওই প্রকল্পের ঘরগুলো নির্মাণের সময় উপকারভোগীর হাতে নগদ টাকা দিয়ে দেওয়া হতো।

এ ব্যাপারে বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ এমরান হোসেন বৃদ্ধার নিহতের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।