বাংলাদেশ বিনিয়োগের সবচেয়ে উদার দেশ : শেখ হাসিনা

68

বাংলাদেশকে বিনিয়োগের সবচেয়ে উদার দেশ হিসেবে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশে এই অঞ্চলের সবচেয়ে উদার বিনিয়োগ ব্যবস্থা আছে। এখানে বিস্তৃত সুযোগ-সুবিধা, আকর্ষণীয় প্রণোদনা নীতি ও ধারাবাহিক সংস্কার প্রক্রিয়ার সুযোগ রয়েছে। বাংলাদেশের শিল্প-কারখানা, পরিবহন, জ্বালানি ও অবকাঠামো খাতে ভারতীয় বিনিয়োগকারীদের ব্যাপক বিনিয়োগ করার আহ্বানও জানিয়েছেন দেশটিতে সফররত বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ভারতীয় বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমি ভারতীয় বিনিয়োগকারীদের অবকাঠামো, প্রকল্প, শিল্পকারখানা, জ্বালানি ও পরিবহন খাতে সম্ভাব্য বিনিয়োগ বিবেচনা করার অনুরোধ করবো। ভারতীয় বিনিয়োগকারী ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান কম সময়ে, সাশ্রয়ী ব্যয় ও স্বল্প সম্পদে উৎপাদিত পণ্যের বিক্রির নিশ্চয়তাসহ বাই-ব্যাক ব্যবস্থায় বাংলাদেশে শিল্প স্থাপন করতে পারেন।

কনফেডারেশন অব ইন্ডিয়ান ইন্ডাস্ট্রি (সিআইআই) ও ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বারস অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই) এর যৌথ আয়োজনে উচ্চ পর্যায়ের ব্যবসা সংক্রান্ত এক অনুষ্ঠানে দেয়া ভাষণে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শেখ হাসিনা বলেন, বর্তমানে শিল্প, কর্মসংস্থান, উৎপাদন ও রপ্তানি বৃদ্ধি ও বহুমুখীকরণের মাধ্যমে বিনিয়োগ এবং দ্রুত অর্থনৈতিক উন্নয়নকে উৎসাহিত করার লক্ষ্যে সারাদেশে ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল এবং ২৮টি হাই-টেক পার্ক স্থাপন করা হচ্ছে। ভারতীয় বিনিয়োগকারীদের জন্য মংলা ও মিরেরসরাইতে ২টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল তৈরি করা হচ্ছে। আমি এখানে উপস্থিত ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোকে সেখানে বিনিয়োগ করার জন্য অনুরোধ করবো।

বাংলাদেশের সরকারপ্রধান বলেন, (বাংলাদেশে ভারতীয় বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগ) দুটি বন্ধুপ্রতীম দেশের (ভারত-বাংলাদেশ) সদিচ্ছাকে কাজে লাগানোর পথকে আরও প্রশস্ত করবে ও এই অঞ্চলে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি আনবে। ভৌগোলিকভাবে বাংলাদেশের সুবিধাজনক অবস্থানের জন্য ভারতীয় বিনিয়োগকারীরা তাদের পণ্য ভারতের উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলোর পাশাপাশি নেপাল, ভুটান ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোতেও রপ্তানি করতে পারবেন।