বদনজর ও ক্ষতি থেকে শিশুকে নিরাপদ রাখার দোয়া

210

নবিজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম নিজের দুই প্রাণপ্রিয় নাতি হজরত হাসান-হুসাইনের জন্য নিরাপত্তার দোয়া করেছেন। এ দোয়াটি হতে পারে সব শিশুদের ক্ষতি ও বদনজর থেকে নিরাপদ রাখার অন্যতম মাধ্যম। দুই নাতিকে নিরাপদ রাখতে কী দোয়া করেছিলেন নবিজী?

হজরত ইবনে আব্বাস রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেছেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তাঁর আদরের দুই নাতি হজরত হাসান-হুসাইনের নিরাপত্তার জন্য এ দোয়া করতেন-

أُعِيذُكُمَا بِكَلِمَاتِ اللَّهِ التَّامَّةِ مِنْ كُلِّ شَيْطَانٍ وَهَامَّةٍ وَمِنْ كُلِّ عَيْنٍ لاَمَّةٍ ‏

উচ্চারণ : ‘উয়িজুকুমা বিকালিমাতিল্লাহিত তাম্মাতি মিন কুল্লি শাইত্বনিওঁ ওয়া হাম্মাতিন, ওয়া মিন কুল্লি আইনিন লাম্মাতিন।’

অর্থ : ‘আমি তোমাদের উভয়ের উদ্দেশ্যে আল্লাহ তাআলার পরিপূর্ণ কল্যাণময় কালামের মাধ্যমে প্রতিটি শয়তান, জীবননাশক বিষ ও অনিষ্টকারী কুদৃষ্টি (বদনজর) থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করছি।’

নবিজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলতেন, ‘এভাবে ইবরাহিম আলাইহিস সালাম তার দুই ছেলে ইসহাক ও ইসমাঈলের জন্য আশ্রয় চাইতেন।’ (তিরমিজি)

সুতরাং সব মানুষের উচিত, হাদিসে শেখানো ছোট্ট এ দোয়াটির মাধ্যমে নিজেদের শিশু বাচ্চাদের বদনজর ও যাবতীয় ক্ষতি থেকে নিরাপত্তার জন্য দোয়া করা।

আল্লাহ তাআলা সবাইকে হাদিসের যথাযথ আমল করার তাওফিক দান করুন। নবিজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের শেখানো দোয়ার মাধ্যমে শিশুদের নিরাপত্তায় আল্লাহর কাছে আশ্রয় প্রার্থনা করার তাওফিক দান করুন। আমিন।