পূর্বধলায় বিপুল পরিমাণ মাদকসহ আটক – ২

120
পূর্বধলায় বিপুল পরিমাণ মাদকসহ আটক - ২
পূর্বধলায় বিপুল পরিমাণ মাদকসহ আটক - ২

নেত্রকোণার পূর্বধলায় বুধবার (০২ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে ১৪ কেজি গাঁজা ও ২১বোতল বিদেশী মদসহ ২ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পূর্বধলার থানার পুলিশ। আটককৃতরা হলেন, উপজেলার মানিকদি গ্রামের মৃত মাহতাব উদ্দিনের ছেলে কুখ্যাত হাতকাটা সেলিম (৫৫) ও মাদক ব্যবসায়ী আব্দুস সালামের স্ত্রী নাসিমা বেগম (২০)।

শ্যামগঞ্জ পুলিশ তদন্ত কেন্দে্রর সহকারী উপ—পরিদর্শক (এএসআই) হারুনুর রশিদ জানান, বুধবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শ্যামগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির নিকটবর্তী মানিকদি গ্রামের কুখ্যাত মাদক সম্রাট খুরশিদ আলমের বাড়িতে অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টেড় পেয়ে খুরশিদ আলম ও তার স্ত্রী হাফসা বেগম পালিয়ে যায়।

পরে খবর পেয়ে পূর্বধলা থানার ওসি মুহাম্মদ শিবিরুল ইসলাম অতিরিক্ত পুলিশ নিয়ে খুরশিদ আলমেরর বসত ঘর, তার বড়ভাই সেলিম মিয়ার ঘর ও অপর ভাই আব্দুস সালামের বসত ঘর সংলগ্ন গোয়াল ঘরে বিশেষ পদ্ধতিতে লুকিয়ে রাখা ১৪ কেজি গাঁজা ও ২১বোতল বিদেশী মদ উদ্ধার করে। এ সময় মাদক সম্রাট খুরশিদ আলমের ব্যবহৃত টিভিএস কোম্পানীর এ্যাপাসী মোটর সাইকেলটি পুলিশ জব্দ করে। পূর্বধলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ শিবিরুল ইসলাম বলেন, আটকৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় খুরশিদ আলম প্রায় ১০/১২ বছর ধরে মাদকের ব্যবসা করে আসছে। থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। সূত্র জানায়, এসময় সর্বমোট ২১ (একুশ) বোতল আমদানি নিষিদ্ধ ভারতীয় মদ যার মূল্য অনুমান ৬৩,০০০/— (তেষট্টি হাজার) টাকা, মদ বিক্রির নগদ ১,৫৩,৭৭০/— (এক লক্ষ তেপান্ন হাজার সাতশত সত্তর) টাকা এবং সর্বমোট ১৪ (চৌদ্দ) কেজি গাঁজা যার মূল্য অনুমান ২,৫২,০০০/— (দুই লক্ষ বায়ান্ন হাজার) টাকা উদ্ধারপূর্বক করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে সেলিম মিয়া এবং নাছিমা বেগমকে গ্রেফতার করা হয়৷