পিরোজপুর ডিবি পুলিশের হাতে ভীমবার দিয়ে প্রতারনার সময় এক প্রতারক আটক

170

এম এ মুন্না, পিরোজপুর প্রতিনিধিঃ পিরোজপুর ডিবি পুলিশের অভিযানে পৌর শহরের নতুন পৌরসভা রোডের আশা অফিসের সামনে থেকে মোঃ আপান মাতুব্বর (৫৫) নামে এক প্রতারককে গ্রেফতার করা হয়েছে। আপান মাতুব্বর ফরিদপুর জেলার ভাংগা থানার চরদিকান্দা সদরদির মৃতঃ আদেলউদ্দিনের ছেলে।

আটকের সময় আসামীর কাছ থেকে সবুজ রংয়ের দুই টুকরা গামছায় মোড়ানো (কথিত সৌদি রিয়াল) পোটলা উদ্ধার করা হয়। গামছার পোটলা খুললে দেখা যায় একটি ভীম বারের চারদিক থেকে পুরাতন খবরের কাগজ ভাজ করে গামছার কাপড় দিয়ে বেধে রিয়াল/টাকার মত করে রাখা হয়, যেন যে কেউ দেখলে যেন মনে করে পোটলায় রিয়াল বা টাকা আছে।
এই ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ নাজিরপুর উপজেলার ডায়মন্ড মধু খামারের প্রোপ্রাইটর মনোজ কুমার মন্ডল বাদী হয়ে পিরোজপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, কয়েকদিন আগে আপান মাতুব্বার তার সহযোগীদের নিয়ে নাজিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ অফিসের দক্ষিণ পাশে মনোজ কুমারের ডায়মন্ড মধু খামারে গিয়ে লেপ তোষকের কারিগর পরিচয় দেয়। বিভিন্ন কথার পরে তাদের কাছে বেশ কিছু সৌদি রিয়াল আছে অল্প টাকায় বিক্রয় করবে বলে প্রস্তাব দেয়। মনোজ কুমারকে যাচাই করার জন্য তারা প্রথমে একটি সৌদি রিয়াল দেয়।

তিনি আপান মাতুব্বার ও তার সহযোগীদের কথা বিশ্বাস করে রিয়ালটি ঢাকায় নিয়ে যাচাই করে সঠিক পেয়ে বিক্রি করে। গত ২ ফেব্রুয়ারী আপান ও তার সহযোগীরা আবারও মনোজ কুমারের ডায়মন্ড মধু খামারে গিয়ে তাদের কাছে একলক্ষ রিয়াল আছে সেই রিয়াল তাকে খুব অল্পদামে ক্রয় করার জন্য প্রলুব্দ করে। মনোজ কুমার রিয়াল ক্রয় করার কথা বললে পিরোজপুর সদর উপজেলা সামনে বসে তার কাছ থেকে ৩০ হাজার টাকা নিয়ে গামছার কাপড়ে মোড়ানো রিয়াল সাদৃশ্য পোটলা দেখিয়ে আরও টাকা চায়।

তখন মনোজ কুমারের সন্দেহ হওয়ায় ডাক চিৎকার দিলে সি ও অফিস মোড়ে কর্তব্যরত ডিবি পুলিশ এগিয়ে গেলে আসামিরা দৌড়ে পালানোর সময় আপান মাতুব্বর দেয়ালের সাথে ধাক্কা খেয়ে পরে আহত হয়। অতপরঃ ডিবি পুলিশ আসামীর জ্যাকেটের মধ্যে থেকে দুই টুকরা গামছার কাপড়ে মোড়ানো প্রতারনায় ব্যবহৃত কথিত সৌদি রিয়াল প্রকৃত পক্ষে একটি ভীমবার ২০ টি পুরাতন খবরের কাগজ দিয়া মোরানো অবস্থায় উদ্ধার করেন। পলাতক আসামীদের গ্রেপ্তারের অভিযান অব্যহত আছে।