Logo
বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারি, ২০২২ | ৬ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম আঘাত রাহীর

প্রকাশের সময়: ১১:৩০ পূর্বাহ্ণ - শনিবার | ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২০

তৃতীয় মাত্রা

ডেস্ক রিপোর্ট : বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের মধ্যকার রাওয়ালপিন্ডি টেস্টের দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু হয়েছে। নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং করছে পকিস্তান। দিনের দ্বিতীয় ওভারেই বাংলাদেশকে সাফল্য এনে দিয়েছেন পেসার আবু জায়েদ রাহি। তার বলে ‘ডাক’ মেরে ফিরেছেন আবিদ আলী। পাকিস্তানের দলীয় রান তখন ২।

রাওয়ালপিন্ডি টেস্টে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে নিজেদের প্রথম ইনিংসে পুরো একটা দিনও খেলতে পারেনি বাংলাদেশ দল! গতকাল প্রথম দিনে ৭.১ ওভার বাকি থাকতেই সফরকারীরা অল-আউট হয়েছে মাত্র ২৩৩ রানে। এরপর আম্পায়াররা দিনের খেলার সমাপ্তি ঘোষণা করেন। দলের হয়ে একমাত্র হাফ সেঞ্চুরি করেছেন মোহাম্মদ মিঠুন। দলীয় ৩ রানেই প্যাভিলিয়নে ফিরে যান দুই ওপেনার তামিম ইকবাল আর অভিষিক্ত সাইফ হাসান। ভারত সফরে না থাকা তামিম মোহাম্মদ আব্বাসের বলে এলবিডাব্লিউ হয়ে ফিরেন মাত্র ৩ রানে। অন্যদিকে ‘ডাক’ মেরে বিবর্ণ হলো সাঈফের অভিষেক। শাহিন শাহ আফ্রিদির বলে ক্যাচ দেন আসাদ শফিকের হাতে।

অথৈ সমুদ্রে পড়া দলকে নতুন আশা দেখান অধিনায়ক মুমিনুল হক আর নাজমুল হোসেন শান্ত। তাদের জুটিতে আসে ৫৯ রান। দুজনেই যখন উইকেটে সেট হয়ে গেছেন, তখনই ছন্দপতন। শাহিন শাহ আফ্রিদির দ্বিতীয় শিকার হয়ে ফিরেন ৫৯ বলে ৫ বাউন্ডারিতে ৩০ রান করা মুমিনুল। ৬২ রানে তৃতীয় উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরপর শান্তর সঙ্গী হন মাহমুদউল্লাহ। জুটিতে ৩৩ রান আসতেই ১১০ বলে ৪৪ রান করা শান্ত মোহাম্মদ আব্বাসের শিকার হয়ে ফিরে যান। মধ্যাহ্ন বিরতির পর ৩৭তম ওভার বাংলাদেশের স্কোর তিন অংক স্পর্শ করে।

তবে আর ৭ রান যোগ করেই প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। শাহিন আফ্রিদির তৃতীয় শিকার হওয়ার আগে তার সংগ্রহ ২৫ রান। উইকেটে লিটন দাস আসার পর দ্রুত ঘুরতে থাকে রানের চাকা। কিন্তু নিজের ইনিংস বেশিদূর নিয়ে যেতে পারননি বিপিএলে দুর্দান্ত খেলা লিটন দাস। হারিস সোহেলের বলে এলবিডাব্লিউ হয়ে তার ৭ চারে ৩৩ রানের সম্ভাবনাময় ইনিংসটির মৃত্যু হয়। রিভিউ নিয়ে লিটনকে ফেরায় পাকিস্তান। এরপর উইকেটে দৃঢ়তা দেখান মোহাম্মদ মিঠুন আর তাইজুল। এই জুটিতে আসে ৫৪ রান। হারিস সোহেলের দ্বিতীয় শিকার ৭২ বলে ২৪ রান করা তাইজুল ইসলাম।

একসময় ভাবা হচ্ছিল, হয়তো পুরো দিনটা শেষ করবে বাংলাদেশ। কিন্তু কোথায় কী? ১ রান করে শাহিন আফ্রিদির চতুর্থ শিকার রুবেল হোসেন। এরপরেই নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে নাসিম শাহর বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে আউট হন ১৪০ বলে ৬৩ রান করা মিঠুন। বাংলাদেশের ইনিংসের একমাত্র হাফ সেঞ্চুরিয়ান তিনি। সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রান সংগ্রাহকও বটে। যদিও মিঠুনের আউট নিয়ে কিছুটা বিতর্কও আছে। রান-আউটে আবু জায়েদ (০) বিদায় হলে ৮২.৫ ওভারে ২৩৩ রানে অল-আউট হয় বাংলাদেশ। ৫৩ রানে ৪ উইকেট নিয়েছেন শাহিন শাহ আফ্রিদি। ২টি করে নিয়েছেন মোহাম্মদ আব্বাস আর হারিস সোহেল।

Read previous post:
বাংলাদেশে আসছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী

তৃতীয় মাত্রা পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ও কিংবদন্তি ক্রিকেটার ইমরান খান চলতি বছরের মে মাসের শেষের দিকে বাংলাদেশ সফরে আসতে পারেন। আট...

Close

উপরে