নড়াইলে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার ৪

71

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল থেকে : নড়াইলে সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক ছাত্রীকে অপহরণ করে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে চার যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। উজ্জ্বল রায়, নড়াইল থেকে জানান, বৃহস্পতিবার (১০ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে নড়াইল শহরের ভওয়াখালী এলাকা থেকে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে বুধবার রাতে ফেব্রুয়ারিখ শহরের ভওয়াখালী এলাকা থেকে মেয়েটিকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। উদ্ধার হওয়া মেয়েটি নড়াইল সদর উপজেলার আউড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা। গ্রেপ্তার হওয়া চার যুবক হলেন খুলনার তেরখাদা উপজেলার আকলে গ্রামের নাজিম বিশ্বাস (২০), নড়াইলের কালিয়া উপজেলার শুক্তগ্রামের আলী হোসেন (২০), নড়াইল সদর উপজেলার বাঁশগ্রাম ইউনিয়নের করমচন্দ্রপুর গ্রামের মো. কাদের (২০) ও নড়াইল শহরের ভওয়াখালী গ্রামের মো. রুবেল সরদার (১৯)। তাঁরা সবাই ভওয়াখালী এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকেন। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মা-বাবার সঙ্গে রাগারাগি করে মেয়েটি গত ৫ ফেব্রুয়ারিখ রাত আটটার দিকে বাড়ি থেকে বের হয়। নড়াইল শহর থেকে একটি ইজিবাইকে উঠে ৮ কিলোমিটার তুলরামপুরের দিকে যায়। সেখান থেকে আবার একই ইজিবাইকে নড়াইল শহরে ফিরে আসে। তখন ইজিবাইক চালক নাজিম বিশ্বাস বিষয়টি বুঝতে পেরে তাকে বাসায় নিয়ে যায়। এরপর আরেক বাসায় নেয়। সেখানে গ্রেপ্তার হওয়া যুবকেরা আটকে রেখে তাঁকে ধর্ষণ করে। এদিকে মেয়ে অপহরণের ঘটনায় বুধবার (৯ ফেব্রুয়ারী) রাতে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের নামে নড়াইল সদর থানায় মামলা করেন মেয়েটির মা। নড়াইল জেলা পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন সেল এর ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক শিমুল কুমার দাস জানান, তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে মেয়েটির অবস্থান শনাক্ত করে মামলা হওয়ার এক ঘণ্টার মধ্যে বুধবার রাতে মেয়েটিকে উদ্ধার। নড়াইল সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শওকত কবির বলেন,ধৃত আসামীরা থানায় এবং আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দিয়েছে। তাদেরকে রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে,মেয়েটির ধর্ষনের পরীক্ষা করা হয়েছে। রিপোর্ট পেলে পরবর্তী আইনগত পদক্ষেপ নেয়া হবে।