নবাবগঞ্জে ভ্রাম্যমান আদালতে দুটি অবৈধ ক্লিনিক সিলগালা

67

মোঃ জাকির হোসেন, দোহার-নবাবগঞ্জ থেকে : ঢাকার নবাবগঞ্জে দুইটি প্রাইভেট ক্লিনিকে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান পরিচালনা করেছেন। উপজেলার বারুয়াখালীর বন্ধন ক্লিনিক ও বান্দুরার হেলাল ক্লিনিক নামে দুটি অনিবন্ধিত ক্লিনিককে সিলগালা করা হয়েছে।

এ অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) অরুন কৃষ্ণ পাল। এসময় ক্লিনিকের নিবন্ধন সহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় মেডিকেলের সব রকম কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়ে ক্লিনিক মালিক হেলাল উদ্দিন কে ৩ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেন ভ্রাম্যমান আদালত। অপরদিকে বারুয়াখালী বাজারের বন্ধন ক্লিনিক ও ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে অভিযান পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমান আদালত। ওই ক্লিনিকের নিবন্ধন সহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া হয়।

এছাড়া ক্লিনিকের মালিক জুয়েল ও আবুল হোসেন রানাকে ২ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড করেন আদালত। এছাড়া উপজেলা সদর নবাবগঞ্জের বাগমারার সেতু ক্লিনিকের নিবন্ধন না নেয়া পর্যন্ত ক্লিনিক কার্যক্রম বন্ধ রাখার হুশিয়ারী করা হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ শহীদুল ইসলাম তথ্যটি নিশ্চিত করে তিনি বলেন, উপজেলায় ৯ টি অনিবন্ধিত ক্লিনিক ও ডায়াগনষ্টিক সেন্টার রয়েছে। দু একদিনের মধ্যে অভিযান চালাবে ভ্রাম্যমান আদালত। এহময় ভ্রাম্যমান আদালতে সহযোগিতা করেন নবাবগঞ্জ থানা পুলিশ সদস্য বৃন্দ।