ডিমলার টেপা খড়িবাড়ি ইউপিতে এ্যাম্বুলেন্সের উদ্বোধন

ডিমলা নীলফামারী প্রতিনিধিঃ প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্ন “আমার গ্রাম আমার শহর” বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ইউনিয়ন পর্যায়ের নাগরিকদের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করনে টেপাখরিবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ময়নুল হক এর পরিকল্পনা ও নির্দেশনায় ২০২১-২২ অর্থবছরের (এলজিএসপি-৩) এর অর্থায়নে ১১ লাখ ২০ হাজার টাকায় একটি নতুন অ্যাম্বুলেন্স ক্রয় করা হয়। 

টেপাখরিবাড়ি সহ পার্শ্ববর্তী কয়েক ইউনিয়নের রোগী পরিবহনের ক্ষেত্রে শুধুমাত্র তেল দিয়ে রোগীর পরিবার এই এ্যাম্বুলেন্সটি ব্যবহার করতে পারবে। এতে কোনো অতিরিক্ত টাকা দেওয়ার প্রয়োজন হবে না।

রবিবার (১৯শে জুন) বিকাল পাঁচটার সময় নীলফামারীর ডিমলা উপজেলায় টেপাখড়িবাড়ী সহ পার্শ্ববর্তী ইউনিয়নের সর্বসাধারণের স্বাস্থ্যসেবায় ব্যবহৃত এই অ্যাম্বুলেন্সটির এর শুভ উদ্বোধন ও তিস্তা নদীর তীরবর্তী স্বপন বাঁধের ভাঙ্গা অংশ পরিদর্শন করেন জেলা প্রশাসক ইয়াসিন আরেফীন।

অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার বেলায়েত হোসেন, জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আব্দুল করিম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইবনুল আবেদীন, ইউপি চেয়ারম্যান মইনুল হক, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মেজবাহুর রহমান, উপসহকারী প্রকৌশলী (ত্রাণ শাখা)  ফেরদৌস আলম এছাড়াও অত্র ইউনিয়নের সকল সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য যে,গত কয়েকদিনের টানা ভারী বর্ষণ ও উজানের পাহাড়ি ঢলে তিস্তা নদীর পানি বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রভাবিত হওয়ায় টেপাখড়িবাড়ি ইউনিয়নের তেলির বাজার সংলগ্ন স্বেচ্ছাসেবী স্বপন বাঁধের প্রায় ৫০ মিটার অংশ ভেঙ্গে আশপাশের বসত ভিটায় পানি প্রবেশ করে। এসময় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পানি বন্দি মানুষের মাঝে ত্রান সহায়তা হিসাবে ২০ কেজি করে মোট ১৫০ জনের মাঝে (জিআর) চাউলসহ বিভিন্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়  ক্রীড়া সামগ্রী বিতরন করা হয়।

অপর দিকে একই উপজেলার ৭ নং খালিশা চাপানি ইউপি চেয়ারম্যান সহিদুজ্জামান সরকার এবং ৫ নং গয়াবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান সামসুল   বন্যার্ত পরিবারদের ব্যাপারে জানতে চাইলে তারাঁ বলেন খোঁজ খবর সর্বদা নিচ্ছি সরকারের পক্ষ থেকে কোন ত্রাণ সামগ্রী আসা মাত্র পৌঁছে দেয়া হবে। তবে এ ক্ষেত্রে সরকারি অনুদানের পাশাপাশি সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আশার আহবানও জানান তারা।

Exit mobile version