টাঙ্গাইলে ৩ ক্লিনিক সিলগালা

59

জেলা প্রতিনিধি : সারাদেশের সব অবৈধ হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশ বাস্তবায়নে টাঙ্গাইলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার (২৮ মে) সকাল ১০টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত টাঙ্গাইল সদর উপজেলার বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান চালিয়েছে সদর উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

এসময় বৈধ কাগজপত্র না থাকায় তিনটি ক্লিনিক সিলগালা করা হয়েছে। এছাড়া অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ ও বৈধ কাগজ না দেখাতে পারায় আরও তিনটি ক্লিনিকের মালিককে জরিমানা করা হয়েছে। সিলগালা করা ক্লিনিকগুলো হলো- পদ্মা ডিজিটাল ক্লিনিক, আমানত ক্লিনিক অ্যান্ড হসপিটাল এবং স্বদেশ ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার। এছাড়া অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ থাকায় দি সিটি ক্লিনিককে ২০ হাজার টাকা, কমফোর্ট হাসপাতালকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। আর বৈধ কাগজ দেখাতে না পারায় ডিজিল্যাব ক্লিনিককে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করে রোববার দুপুর পর্যন্ত সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে।

এবিষয়ে টাঙ্গাইল সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রানুয়ারা খাতুন বলেন, বৈধ কোনো কাগজপত্র না থাকায় তিনটি ক্লিনিক সিলগালা করা হয়েছে। এছাড়া ডিজিল্যাবে সিজারিয়ান রোগী থাকায় আজকে ৩০ হাজার জরিমানা করে রোববার দুপুর পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছে। এরপর সেটাকে সিলগালা করা হবে।

ইউএনও রানুয়ারা আরও বলেন, সদর উপজেলায় অবৈধ ১৫টি ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার আছে। অভিযান অব্যাহত থাকবে। এসময় সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মুহাম্মদ শরিফুল ইসলাম ও জেলা সিভিল সার্জন অফিসের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।