শোক দিবস উপলক্ষে ব্যানারের নমুনা প্রকাশ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের

201

১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস । জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি ছাড়া ব্যানার ও পোস্টারে অন্য কারও ছবি ব্যবহার না করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন সব দপ্তর ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। শোক দিবসে যথাযথভাবে ভাবগাম্ভীর্য সঙ্গে পালন করতে হবে সব সরকারি বেসরকারি স্কুল-কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়সহ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষা অফিসগুলোকে।

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং শিক্ষা অফিসগুলোর দৃশ্যমান স্থানে জাতীয় শোক দিবসের ভাবগাম্ভীর্য অক্ষুন্ন রেখে ব্যানার স্থাপন করে পুরো আগস্ট মাস তা প্রদর্শন করতে বলা হয়েছে। এ ড্রপডাউন ব্যানারের নমুনা প্রকাশ করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

গতকাল সোমবার মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ থেকে এ ব্যানারের নমুনা প্রকাশ করা হয়। 

গত ২৫ জুলাই শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং শিক্ষা অফিসগুলোর দৃশ্যমান স্থানে জাতীয় শোক দিবসের ভাবগাম্ভীর্য অক্ষুন্ন রেখে ব্যানার স্থাপন করে পুরো আগস্ট মাস তা প্রদর্শন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছিলো, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সব দপ্তর বা সংস্থার কার্যালয়ের এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং শিক্ষা সংশ্লিষ্ট অফিসগুলোর দৃশ্যমান স্থানে জাতীয় শোক দিবসের ভাবগাম্ভীর্য অক্ষুন্ন রেখে ব্যানার স্থাপন করতে হবে। ব্যানারগুলো পুরো আগস্ট মাস প্রদর্শন করা যেতে পারে। বিবর্ণ, ছেড়া ব্যানার ব্যবহার করা যাবে না। ব্যানার বিবর্ণ হলে প্রয়োজনে পুনঃস্থাপন করতে হবে। পোস্টার এবং ব্যানারে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি ছাড়া অন্য ছবি ব্যবহার করা যাবে না। মন্ত্রণালয় থেকে ব্যানারের নমুনা তৈরি করে সব দপ্তর, সংস্থায় পাঠানো হবে। দপ্তর, সংস্থা তা অনুসরণ করবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও আওতাধীন দপ্তর এবং সংস্থার কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ আগস্ট মাসব্যাপি কালো ব্যাজ ধারণ করবেন।

সে সিদ্ধান্ত অনুসারে ব্যানারের নমুনা প্রকাশ করেছে মন্ত্রণালয়।

দৈনিক তৃতীয় মাত্রা পাঠকদের জন্য ব্যানারের নমুনা তুলে ধরা হলো।