চাটমোহরে গাছে গাছে আমের মুকুল ছড়াচ্ছে ঘ্রাণ

70

গাছে গাছে ফুটছে আমের মুকুল। চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ছে আমের মুকুলের পাগল করা ঘ্রাণ। বাতাসে মিশে সৃষ্টি করছে মৌ মৌ গন্ধ। যে গন্ধ মানুষের মনকে করছে বিমোহিত। শীতের ভরা মৌসুমে বসন্তের শুরুতে গাছে গাছে ছড়াচ্ছে আমের মুকুলের সুবাসিত পাগল করা সুঘ্রাণ। বিভিন্ন স্থানে গাছে গাছে বের হয়েছে আমের মুকুল। জানান দিচ্ছে ঋতুরাজ বসন্তের আগমণী বার্তা। 

পাবনার চাটমোহর উপজেলার রেলবাজার (অমৃতকৃন্ডা), ধরইল, পার্শ্বডাঙ্গা, হরিপুর, মূলগ্রাম, ফৈলজানা, ধুলাউড়িসহ আম প্রধান বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, আম বাগানের সারি সারি গাছে শোভা পাচ্ছে কেবলই আমের মুকুল। শোভা ছড়াচ্ছে চারিদিক  আমের মুকুলে মৌমাছি আনাগোনা করছে। অনেকেই মুকুল রক্ষা করতে গাছে গাছে ওষুধ স্প্রে করছেন। কৃষি অফিসের কর্মকর্তাদের পরামর্শ নিচ্ছে। 

আম বাগান মালিক গুনাইগাছা ইউনিয়নের চড়পাড়া গ্রামের বাসিন্দা জীবন বীমা কর্পোরেশনের উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. নজরুল ইসলাম জানান, তার বাগানে বিভিন্ন জাতির আম গাছ রয়েছে। সেগুলোতে মুকুল আসছে। মুকুল রক্ষায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। যে পরিমাণ মুকুল আসছে, তা যদি রক্ষা করা যায়, তাহলে আমের ভালো ফলন হবে। 

চাটমোহর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ এ এ মাসুম বিল্লাহ বলেন, এবছরে মৌসুমের শুরুতে আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় মুকুলে ভরে গেছে বাগানসহ ব্যক্তি উদ্যোগে লাগানো আম গাছগুলোতে। তবে বড় আকারের চেয়ে ছোট ও মাঝারি আকারের গাছে বেশি মুকুল ফুটেছে। বাগানসহ ব্যক্তি উদ্যোগে লাগানো মালিকদের প্রয়োজনীয় সকল পরামর্শ প্রদান করা হচ্ছে।