চাটমোহরের ও.এম.এস এর বিক্রয় কেন্দ্রে উপচে পড়া ভীড়

124

চাটমোহর (পাবনা)প্রতিনিধিঃ পাবনার চাটমোহরে খাদ্য অধিদপ্তর কর্তৃক করোনা কালীন বিশেষ ও.এম.এস কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। বিক্রয় কেন্দ্র গুলোতে সুলভ মূল্যে মাথাপিচু ৫ কেজি করে চাল ও ৫ কেজি করে আটা বিক্রি করা হচ্ছে। বুধবার (২৬ জানুয়ারী) সকালে ও.এম.এস এর বিক্রয় কেন্দ্র গুলোতে উপচে পরা ভীড় দেখা গেছে। বরাদ্দ সীমিত হওয়ায় চাল ও আটা না পেয়ে অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধিও উপেক্ষিত হচ্ছে বিক্রয় কেন্দ্র গুলোতে।

ক্রেতাদের কয়েকজন জানান, ও.এম.এস এর বিক্রয় কেন্দ্র গুলোতে প্রতি কেজি চাল ৩০ টাকায় ও প্রতি কেজি আটা ১৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। বাজার মূল্যের চেয়ে অপেক্ষাকৃত বেশ কম দামে চাল ও আটা পাওয়ায় লাভবান হচ্ছেন নিম্নআয়ের মানুষেরা। তবে বরাদ্দ সীমিত হওয়ায় অনেক ক্রেতা চাল ও আটা না পেয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করতে করতে ফিরে গেছেন।

চাটমোহর কলেজগেট এলাকার ডিলার সামসুল আল আমীন তিমির জানান, প্রতিদিন আমরা ২০০ জন ব্যক্তির নিকট ৫ কেজি করে চাল ও ৫ কেজি করে আটা বিক্রি করতে পারছি। ক্রেতার সংখ্যা বেশি হওয়ায় অনেকে চাল আটা না পেয়ে ফিরে যাচ্ছেন। বরাদ্দের পরিমান বাড়লে এ কার্যক্রমে অধিক সংখ্যক মানুষ উপকৃত হবে।

চাটমোহর উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম জানান, চাটমোহর পৌর এলাকার চারটি বিক্রয় কেন্দ্রে চারজন ডিলারের মাধ্যমে প্রতিদিন চার টন চাল ও চার টন আটা বিক্রি করা হচ্ছে। গত ২০ জানুয়ারী থেকে এ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। সপ্তাহে ছয় দিন চাল ও আটা বিক্রি হচ্ছে। তবে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে কখনো কখনো আটা সরবরাহ করা সম্ভব হচ্ছে না। বরাদ্দের পরিমান কম হওয়ায় অনেক মানুষ চাল আটা না পেয়ে ফিরে যাচ্ছেন। স্বাস্থবিধি সম্পর্কে তাদের সচেতন করার চেষ্টা করা হলেও সুফল মিলছে না।