চরফ্যাশনে ব্লু গার্ড সদস্যদের অভিযান ও পরিচ্ছন্নতা প্রশিক্ষণ

78
চরফ্যাশনে ব্লু গার্ড সদস্যদের অভিযান ও পরিচ্ছন্নতা প্রশিক্ষণ
চরফ্যাশনে ব্লু গার্ড সদস্যদের অভিযান ও পরিচ্ছন্নতা প্রশিক্ষণ

২৯ জানুয়ারি শনিবার চরফ্যাশন উপজেলার নির্বাচিত ব্লু গার্ড সদস্যরা প্রশিক্ষণ কার্যক্রমে অংশ নেন। চর কুকরি মুকরি ইউনিয়ন পরিষদে অনুষ্ঠিত এ প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন অধ্যক্ষ আবুল হাশেম মহাজন। তিনি প্রশিক্ষিত ব্লু গার্ডরা নতুন পর্যটন আকর্ষণ চর কুকরি মুকরিকে পরিচ্ছন্ন রাখতে সারা দেশের মধ্যে একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

প্রশিক্ষণে ব্লু গার্ড সদস্যদের সমুদ্র সৈকত পরিষ্কার পরিছন্নতার বিভিন্ন দিক, বর্জ্য সংগ্রহ, রিসাইক্লিং, সামুদ্রিক জীববৈচিত্র্য বিষয়ে ধারণা দেন ইকোফিশ-২ এর গবেষণা সহযোগী অংকুর মোহাম্মদ ইমতিয়াজ্জামান ও সহকারী গবেষক মোনাইম হোসাইন।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন রেঞ্জ অফিসার আলাউদ্দিন আহমেদ, পুলিশ ইন-চার্জ মোশারফ হোসেন, চর কুকরি মুকরি ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য ডাঃ আল হেলাল ও শারমিন আক্তার।
প্রশিক্ষণ শেষে ব্লু গার্ড সদস্যরা চর কুকরি মুকরির নারিকেলবাড়িয়া সমুদ্র সৈকতে পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি চালায়।

প্রায় দুই ঘণ্টার পরিছন্নতা কার্যক্রমে ১০ জন ব্লু গার্ড সৈকতের প্রায় ১ কিলোমিটার এলাকায় প্লাস্টিকের বোতল, পলিথিন ব্যাগ, পরিত্যক্ত ও ছেঁড়া জাল, প্লাস্টিক মোড়কজাত খাবারের প্যাকেট, নারিকেলের খোসাসহ প্রায় ১৪৫ কেজি বিভিন্ন বর্জ্য সংগ্রহ করেন।
ইউএসএআইডি-এর অর্থায়নে পরিচালিত ওয়ার্ল্ডফিশ বাংলাদেশের ইকোফিশ-২ কার্যক্রমের আওতায় এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

এ প্রসঙ্গে ইকোফিশ-২ এর গবেষণা সহযোগী অংকুর মোহাম্মদ ইমতিয়াজ্জামান বলেন “সামুদ্রিক জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ এবং বাংলাদেশের সুনীল অর্থনৈতিক কার্যক্রমকে সহায়তা করতে স্থানীয় ১০ জন যুবকদের ব্লু গার্ড হিসেবে যুক্ত করেছি যারা প্রতি মাসেই
পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি চালাবে”।