গরমে শরীর ঠান্ডা ও সতেজ রাখে পান্তা ভাত

0
111
নিয়মিত পান্তা ভাত খেলে পেটের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। গরমে শরীর ঠান্ডা ও সতেজ রাখে পান্তা ভাত।
নিয়মিত পান্তা ভাত খেলে পেটের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। গরমে শরীর ঠান্ডা ও সতেজ রাখে পান্তা ভাত।
Spread the love

গরমের সঙ্গে বাড়ছে মানুষের অস্বস্তি। গরমে খাবার খাওয়া থেকে শুরু করে পোশাক নির্বাচন- সবকিছুতেই সতর্ক থাকা উচিৎ। এসময় হরেক রকম মজার সব খাবার এড়িয়ে চলাই ভালো। জিভে লাগাম না দিলে একটুতেই পেট খারাপ হতে পারে এই সময়টাতে। বাইরের গরম আবহাওয়ায় পেট ঠান্ডা রাখা খুব দরকার। পেট ঠান্ডা রাখতে পান্তা ভাতের জুড়ি নেই। এছাড়া আরও কিছু উপকারিতা আছে বাংলার ঐতিহ্যবাহী এই খাবারের। তাহলে জেনে নেওয়া যাক সেসব উপকারিতার কথা।

সচরাচর আমরা যে ভাত খাই তার পুরোটাই শর্করা। সেই ভাতে যদি পানি দিয়ে রাখা হয় তবে বিভিন্ন গাজনকারী ব্যাক্টেরিয়া বা ইস্ট এই শর্করা ভেঙ্গে তৈরি করে ইথানল ও ল্যাকটিক অ্যাসিড। এই অ্যাসিড তৈরির ফলে ভাতের অম্লত্ব বৃদ্ধি পায়। এতে করে ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া ও ছত্রাক ভাত নষ্ট করতে পারে না। পানিতে ভিজিয়ে রাখা ভাতই হলো পান্তা ভাত।

পেটের সমস্যা থেকে দূরে রাখতে পান্তা ভাতের জুড়ি নেই। এটি যেমন পেট ঠান্ডা রাখে তেমনি হজমশক্তিও বাড়িয়ে দেয়। খাবার সহজেই হজম হলে আরও অনেক অসুখ থেকে দূরে থাকা যায়। কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতেও সহায়ক এই পান্তা ভাত। নিয়মিত পান্তা ভাত খেলে পেটের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।

সারাদিন কাজের জন্য শক্তি জোগায় পান্তা ভাত। এটি খেলে শরীর হালকা লাগে, কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। পান্তা ভাত গাঁজানো বা ফারমেন্টেড খাবার। আমাদের শরীরের জন্য উপকারী অনেক ব্যাকটেরিয়া পাওয়া যায় এই পান্তা ভাতে।

ভিটামিনের ভালো উৎস এই পান্তা ভাত। মানবদেহের জন্য প্রয়োজনীয় ভিটামিন পাওয়া যায় এতে। পান্তা ভাত ভিটামিন বি-৬ এবং ভিটামিন বি-১২ এর ভালো উৎস। এই দুটি ভিটামিনই শরীরের সুস্থতার জন্য ভীষণ দরকার। তাই গরমে পান্তা ভাত খাওয়ার অভ্যাস করলে উপকারটা আপনারই হবে।

পান্তা ভাতের পুষ্টিগুণ দারুণ। ১২ ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখালে ১০০ গ্রাম পান্তা ভাতে আয়রনের পরিমাণ গিয়ে দাঁড়ায় ৭৩.৯১ মিলিগ্রামে। অথচ একই পরিমাণ গরম ভাতে আয়রন থাকে মাত্র ৩.৪ মিলিগ্রাম। পটাশিয়াম বেড়ে হয় ৮৩৯ মিলিগ্রাম এবং ক্যালসিয়ামের পরিমাণ বেড়ে হয় ৮৫০ মিলিগ্রাম। এদিকে ১০০ গ্রাম গরম ভাতে থাকে মাত্র ২১ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম। পান্তা ভাতে সোডিয়াম কমে ৩০৩ মিলিগ্রাম হয়, যেখানে একই পরিমাণ গরম ভাতে সোডিয়াম থাকে ৪৭৫ মিলিগ্রাম।

শরীর সতেজ রাখতে সাহায্য করে পান্তা ভাত। গরমে ঘামের কারণে আমাদের শরীর থেকে পানিসহ প্রয়োজনীয় অনেক উপাদান বেরিয়ে যায়। সেই অভাব না মেটালে শরীর নিস্তেজ হয়ে পড়ার আশংকা থাকে। গরমে শরীরকে ভেতর থেকে ঠান্ডা ও সতেজ রাখতে সাহায্য করে পান্তা ভাত। এটি শরীরে পানির অভাব যেমন মেটায় তেমনি শরীরের তাপমাত্রার ভারসাম্য বাজায় রাখে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে