কৃষি উন্নয়নে দেশ কে সমৃদ্ধি করবে কৃষকেরা : পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক

69

খালিদ হোসেন মিলটন, গলাচিপা (পটুয়াখালী) থেকে : বর্তমান সরকার কৃষকদের ভাগ্য উন্নয়নে নানাবিধ ভর্তুকি ও কৃষি প্রণোদনা ও বিভিন্ন যান্ত্রিক উপকরণ দিয়ে, যে ভাবে কৃষকদের সহযোগিতা করে যাচ্ছে তা বাংলার মানুষ চিরদিন বর্তমান কৃষি বান্ধব শেখ হাসিনা সরকারকে মনে রাখবে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের সোনার বাংলাদেশ গড়তে হলে, কৃষিই একমাত্র মাধ্যম। যে খানে গ্রাম বাংলার খেটে খাওয়া মেহনতী মানুষ ও কৃষক কৃষানী সকল প্রকার খাদ্য উৎপাদনে যে সাফাল্য জনক ভূমিকা রেখে চলছে তার সব কৃতজ্ঞতা বাংলার কৃষকদের। তিনি দেশের অধিক সংখ্যক জন মানুষের খাদ্য নিরাপত্তা ও বার মাস কৃষি পণ্য উৎপাদনে দেশ আজ পৃথিবীর কাছে সমাদৃত। গত কাল বৃহস্পতিবার গলাচিপা উপজেলার গোলখালী ইউনিয়নে সুহরী মিনি পোল্ডারে ৫০ একর জমিতে সমালয় প্রকল্পের আওয়তায় বোর ধান উৎপাদনে, যান্ত্রিক চাষাবাদের মাধ্যমে এবং সবধরণের সরকারের প্রাপ্ত সুবিধা দিয়ে দেড় শতাধিক কৃষকদের নিয়ে প্রদর্শনী খামারে বোরধানের বীজ বপণ শুভ উদ্বধনী অনুষ্ঠানে পটুয়াখালী জেলার সু-দক্ষ ও কৃষিবিদ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামাল হোসেন প্রধান অতিথি হিসেবে একথা বলেন।


এছাড়া কৃষকদের মানসিকতা ও মনকে বড় করে সরকারের সফাল্য এবং জিবীকার জন্য কৃষকদের অধিক শ্রম দেয়ার আহবান জানান। অনুষ্ঠান ও মাঠ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন জেলা কৃষি খামার অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক এ কে এম মহিউদ্দিন। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন গলাচিপা উপজেলা কৃষি অফিসার আরজু আক্তার, জেলা কৃষি প্রশিক্ষক ও কর্মকর্তা মো. খায়রুল ইসলাম মল্লিক। স্বাগত বক্তব্য রাখেন গলাচিপা উপজেলা সু-দক্ষ নির্বাহী অফিসার আশিষ কুমার। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যাপক সন্তোষ কুমার দে, সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা টিটো, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ওয়ার্না মাজিয়া নিতু, গোলখালী ইউপি চেয়ারম্যান মো.নাসির উদ্দিন, প্রেস ক্লাব সভাপতি মু. খালিদ হোসেন মিলটন। অনুষ্ঠানটি সার্বিক ভাবে পরিচালনা করেন জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের এ ডি ডি মো. আবদুল মান্নান। অনান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপ-কৃষি কর্মকর্তা মো.এনায়েতুর রহমান, এমপির প্রতিনিধি হাবিবুর রহমান মৃধা প্রমূখ। এই প্রকল্পটি এবং রবি কৃষি প্রণোদনা ২১-২২ কর্মসূচী আলোকে কৃষকদের নিয়ে সমলয় পদ্ধতিতে একটি নিদর্শন সৃস্টি করেছে এই উপজেলায়। উল্লেখ্য যে, ইস্পাহানি-২ হাইব্রিড বোরধান রোপণ করা হয়েছে বলে কৃষি বিভাগ জানান। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মীরা স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃ বৃন্দ ও ইউপি সদস্যসহ শত শত উৎসাহী জনগণ ও কৃষকরা উপস্থিত ছিলেন।