দেশে সম্ভাব্য করোনা সংক্রমণ বৃ‌দ্ধি রোধে ৬ দফা সুপা‌রিশ

84
দেশে সম্ভাব্য করোনা সংক্রমণ বৃ‌দ্ধি রোধে ৬ দফা সুপা‌রিশ
দেশে সম্ভাব্য করোনা সংক্রমণ বৃ‌দ্ধি রোধে ৬ দফা সুপা‌রিশ

বাংলাদেশে এই মুহূর্তে করোনা প‌রি‌স্থি‌তির যথেষ্ট উন্ন‌তি হলেও করোনা সংক্রমণ বৃ‌দ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে বলে মনে করছে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি। দেশে সম্ভাব্য করোনা সংক্রমণ বৃ‌দ্ধি রোধে ৬ দফা সুপা‌রিশও করেছে কমিটি।

দিন কয়েক প‌রই মুস‌লিম সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় উৎসব ঈদ। উৎসব‌টিকে কেন্দ্র করে চলছে কেনাকাটার ধুম। পাশাপা‌শি গণপ‌রিবহনে বাড়ছে ঈদে ঘরমুখী মানুষের ভিড়। অন‌্যদি‌কে প্রতিবেশী দেশ ভারতসহ এশিয়া ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে করোনা সংক্রমণ বৃ‌দ্ধি পাচ্ছে। এ অবস্থায় বাংলাদেশেও করোনা প‌রি‌স্থি‌তির অবন‌তি ঘটতে পারে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ছয় দফা সুপারিশ করেছে কোভিড-১৯ পরামর্শক কমিটি।

সোমবার, ২৫ এ‌প্রিল এ সংক্রান্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কমিটির ৫৭তম সভায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ইউরোপ ও এশিয়ার অ‌নেক দেশে করোনা সংক্রমণ বৃ‌দ্ধির কারণ ও দেশে সংক্রমণের হার ভবিষ্যতে নিয়ন্ত্রণে রাখতে করণীয় সম্প‌র্কে কারিগরি পরামর্শক কমিটির মতামত জানতে চায়। সভা শেষে ছয়টি সুপারিশ তুলে ধরা হয়।

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি যেসব পরামর্শ দিয়েছে তার সারসং‌ক্ষেপ তুলে ধরা হলো :

বাংলাদেশে করোনা সংক্রমণ নিম্নমুখী হলেও পার্শ্ববর্তী দেশ, এশিয়া ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে সংক্রমণের হার বাড়‌ছে। বিষয়‌টি উদ্বেগজনক। জাতীয় কারিগরি কমিটি আশঙ্কা করছে, এখন থেকেই সতর্ক না হলে দেশেও ক‌রোনা সংক্রমণ বাড়তে পারে। তাই সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সঠিকভাবে মাস্ক পরা ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে হ‌বে। যথাযথভা‌বে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ কর‌তে হ‌বে। পাশাপা‌শি সবার মধ্যে সচেতনতা বাড়া‌নোর জন‌্য প্রচার-প্রচারণা বৃ‌দ্ধি কর‌তে হ‌বে।

যেসব দেশে সংক্রমণের হার বেশি সে দেশগুলো থেকে মানু‌ষের বাংলাদেশে প্রবে‌শের ক্ষেত্রে টিকা নেওয়া থাকলেও কোভিড নেগেটিভ সার্টিফিকেট আ‌ছে কিনা তা নিশ্চিত করতে হ‌বে। সব বন্দরে জনগণের প্রবেশ পথে স্ক্রিনিং জোরদার কর‌তে হ‌বে।

আসন্ন ঈদুল ফিতর উপল‌ক্ষে মানুষের কেনাকাটা ও ঘরমুখী যাতায়াতের সময় মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে হ‌বে। এছাড়া তারাবির নামাজ ও ঈদ জামাতে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করতে হ‌বে।

কোভিড-১৯ মোকাবিলায় হাসপাতালগুলোকে সতর্ক করতে এ বিষয়ক প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দি‌তে হ‌বে।

কোভিড-১৯ নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত জাতীয় কমিটির মাধ্যমে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়সহ অন্যান্য মন্ত্রণালয়ের মধ্যে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা আয়োজন করে সবাইকে করোনা নিয়ন্ত্রণে সতর্কাবস্থানে থাকার আহ্বান জানা‌তে হ‌বে।

সবশেষ সুপারিশে বলা হয়, জিনোম সিকোয়েন্সিং ও সার্ভেলিয়েন্স জোরদার করতে হ‌বে।