করোনায় আরও ১০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৮৪০৭

132
করোনায় আরও ১০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৮৪০৭
করোনায় আরও ১০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৮৪০৭

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ২৮ হাজার ১৬৪ জনের। নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন আট হাজার ৪০৭ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬ লাখ ৩২ হাজার ৭৯৪ জন।

মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গ বিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৪৭৫ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৫ লাখ ৫৩ হাজার ৭৯৫ জন। সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮৫৫টি ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ৩৫ হাজার ৯১৬টি এবং নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৩৫ হাজার ৫৪টি।

এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে এক কোটি ১৯ লাখ ২৮ হাজার ৪৫৯টি। এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ২৩ দশমিক ৯৮ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৬৯ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৫ দশমিক ১৬ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭২ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, ২৪ ঘণ্টায় মৃত ১০ জনের আটজন পুরুষ এবং দুইজন নারী। মৃত ১০ জনের মধ্যে রয়েছেন ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে চারজন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে চারজন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে একজন এবং ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন। এতে আরও বলা হয়, মৃত ১০ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের সাতজন এবং চট্টগ্রাম বিভাগের একজন এবং খুলনা বিভাগের একজন এবং ময়মনসিংহ বিভাগের একজন রয়েছেন।

মৃত ১০ জনের সাতজন সরকারি হাসপাতালে এবং তিনজন বেসরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন। এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৫৩২ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ১৯০ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন তিন লাখ ৯২ হাজার ৩৮৩ জন।

আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন তিন লাখ ৫৭ হাজার ৩২৮ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৩৫ হাজার ৫৫ জন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। এরপর ধীরে ধীরে আক্রান্তের হার বাড়তে থাকে।