ওয়ার্ল্ড ক্যান্সার সোসাইটির উদ্যোগে সাতক্ষীরায় বিশ্ব ক্যান্সার দিবস পালন

108
ওয়ার্ল্ড ক্যান্সার সোসাইটির উদ্যোগে সাতক্ষীরায় বিশ্ব ক্যান্সার দিবস পালন
ওয়ার্ল্ড ক্যান্সার সোসাইটির উদ্যোগে সাতক্ষীরায় বিশ্ব ক্যান্সার দিবস পালন

শেখ আমিনুর হোসেন, সাতক্ষীরা ব্যুরো চীফ: ক্যান্সার একটি নিরব ঘাতক মরণব্যাধি। দেশে ক্যান্সার আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। দীর্ঘদিন ধরে ক্যান্সারের ব্যয়বহুল চিকিৎসা বেশিরভাগ নিম্নবিত্ত মানুষের ক্ষেত্রে সম্ভব হয়ে ওঠে না। পরিসংখ্যান বলছে, বর্তমানে ক্যান্সারে গোটা পৃথিবীতে যত মানুষের মৃত্যু হয়, তার ৬৫% দেখা যায় গরিব দেশগুলিতেই।

ইউরোপের ধনী দেশগুলি বা আমেরিকায় ক্যান্সারের কারণে মৃত্যু হয় না- তাও নয়। কিন্তু সে সব দেশেও ক্যান্সারে মৃত্যুর পরিমাণ বেশি দেখা যায় নিম্নবিত্ত, মূলবাসী, অভিবাসী, উদ্বাস্তু এবং গ্রামীণ সমাজের মানুষের মধ্যেই।

বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রীর তহবিল থেকে ক্যান্সারসহ জটিল রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের চিকিৎসা সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে এসব সহায়তা দেওয়া হয়। এছাড়া জেলা পরিষদ ও পৌরসভা থেকেও সহায়তা দেওয়া হয়। কিন্তু এ সহায়তা যথেষ্ট নয়। দরকার ক্যান্সার প্রতিরোধে সামাজিক সচেতনতা।শুক্রবার (৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে সাতক্ষীরা সাংবাদিক ঐক্য অফিসে ওয়ার্ল্ড ক্যান্সার সোসাইটি বাংলাদেশ আয়োজিত বিশ্ব ক্যান্সার দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

বক্তারা আরও বলেন, সাতক্ষীরা একটি উপকূলীয় দুর্যোগপ্রবন অঞ্চল। এ অঞ্চলের অধিকাংশ মানুষ গরীব ও অসহায়। জেলাবরসির স্বপ্নের মেডিকেল কলেজ স্থাপিত হলেও সেখানে নেই অনকোলোজি বিভাগ। ফলে ক্যান্সার পরীক্ষার কোন সুযোগ নেই। এতে করে ক্যান্সার পরীক্ষার জন্য গরীব অসহায় মানুষকে যেতে হয় খুলনা-ঢাকায়। পরীক্ষায় খরচ হয় মোটা অংকের টাকা। এতে নিঃস্ব হয় রোগী ও তার পরিবার। তাই ক্যান্সার প্রতিরোধে তামাক ও তামাক জাতীয় পণ্য বর্জনে সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে। সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অনকোলোজি বিভাগ চালু করে অন্ততপক্ষে সার্বক্ষণিক একজন ডাক্তার নিয়োগ দেওয়ার দাবি জানান বক্তারা।

বক্তারা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য উপস্থাপন করে বলেন, বিশ্বে প্রতিবছর ৮২ লাখ মানুষ ক্যান্সারে মৃত্যুবরণ করে। বিশেষ করে সাড়ে ১০ কোটি নারী ব্রেস্ট ক্যান্সারে আক্রান্ত হন। আশঙ্কাজনক খবর হলো, দ্বিতীয় এ মরণব্যাধিতে আক্রান্তদের মধ্যে অধিকাংশই হচ্ছে বাংলাদেশসহ তৃতীয় বিশ্বের নাগরিক। নারীদের স্তন ক্যান্সার ও পুরুষের ফুসফুস ক্যান্সার বর্তমানে ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। সচেতনতাই পারে আমাদের এসব জটিল রোগ থেকে দূরে রাখতে।

ওয়ার্ল্ড ক্যান্সার সোসাইটি বাংলাদেশ-এর আয়োজনে দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে-Close the Care Gape. ‘আসুন ক্যান্সার সেবায় বৈষম্য দূর করি’।

সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি, দৈনিক পত্রদূতের উপদেষ্টা সম্পাদক ও চ্যানেল আই’র সাতক্ষীরা প্রতিনিধি আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে এবং দৈনিক সকালের ডাক পত্রিকার সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি ও শহীদুল ইসলামের পরিচালনায় আলোচনা সভায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি মুনসুর রহমান, জেলা শ্রমিকলীগের সদস্য সচিব মাহমুদুল আলম বিবিসি, দৈনিক খোলা কাগজের সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ইব্রাহীম খলিল, দৈনিক সময়ের কাগজের আমিরুজ্জামান বাবু, নিউজ বাংলা টুয়েন্টিফোর ও দৈনিক তথ্যের সাতক্ষীরা প্রতিনিধি সৈয়দ রফিকুল ইসলাম শাওন, বাংলা ট্রিবিউনের সাতক্ষীরা প্রতিনিধি আসাদুজ্জামান, বিশিষ্ট চিকিৎসক সুদয় কুমার মন্ডল, দৈনিক আজকালের খবরের সিরাজুল ইসলাম, দৈনিক পত্রদূতের ম্যানেজার এসএম রফিকুল ইসলাম, দৈনিক পাঞ্জেরীর সেলিম হোসেন, দ্য এটিটরস্ এর হাবিবুল হাসান, সাংবাদিক আরিফুজ্জামান আপন, হোসেন আলী, রেজাউল ইসলাম, মনিরুজ্জামান সৌখিন, রাকিবুল ইসলাম, আবির হাসান, রতন সরকার প্রমুখ। মাঘের সকালে শ্রাবণ মাসের মতো বৃষ্টিধারার মধ্যে বৈরী আবহাওয়ায় আলোচনা সভায় সাংবাদিক, শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও সুধীজন উপস্থিত ছিলেন।