এবার প্রেমের টানে দিনাজপুরে এসে অস্ট্রিয়ান সুদর্শন যুবকের বিয়ে 

76
এবার প্রেমের টানে দিনাজপুরে এসে অস্ট্রিয়ান সুদর্শন যুবকের বিয়ে 
এবার প্রেমের টানে দিনাজপুরে এসে অস্ট্রিয়ান সুদর্শন যুবকের বিয়ে 

হুমায়ুন কবির, ঠাকুরগাঁও  বিশেষ প্রতিনিধিঃ  প্রেম অবিনশ্বর, প্রম কোন নির্দিষ্ট ভূখন্ড ও বাধা  মানে না। তাইতো প্রেমের টানে হাজার হাজার মাইল পাড়ি দিয়ে প্রায় প্রতিনিয়ত বাংলাদেশে ছুটে আসছেন ভিনদেশি প্রেম পাগল তরুণ-তরুণী। এরই ধারাবাহিকতায় এবার বাংলাদেশের এসেছেন  দিনাজপুরে এসেছেন ৩৫ বছর বয়সী অস্ট্রিয়ান সুদর্শন অ্যাড্রিয়ান বারিসো নিরা।  এখানে এসে বিয়ে ও করে ফেলেছেন তার মনের মানুষকে। গত মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) রাতে শহরের একটি চাইনিজ রেস্টুরেন্টে ধুমদাম ও জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনে বিয়েও করেছেন নুসরাত জাহান রুম্পা নামের প্রেমিকাকে। খবর পেয়ে তাদের দেখতে ভিড় করছেন শত শত মানুষ।

অ্যাড্রিয়ান বারিসো নিরা অস্ট্রিয়ার হিয়ানার বাসিন্দা। পেশায় তিনি একজন প্রকৌশলী। একটি নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করেন। তিনি মুসলিম। এর আগে  গত রোববার (৭ আগস্ট) বাংলাদেশে আসেন তিনি।  পরদিন ঢাকা থেকে দিনাজপুরে যান তিনি।  স্থানীয়রা জানান, ২০১৯ সালে অ্যাড্রিয়ানের সঙ্গে আমেরিকায় দেখা হয় দিনাজপুরের উপশহরের মৃত আব্দুর রাজ্জাকের মেয়ে নুসরাত জাহান রুম্পার। পরে ফেসবুকসহ নানান সামাজিক মাধ্যমে তাদের কথা হয়। ২০২০ সালে তারা বিয়ে করার জন্য সম্মত হলেও করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে সেটি পিছিয়ে যায়। পরে অ্যাড্রিয়ান বাংলাদেশে এসে বিয়ে করেন।

এ বিষয়ে নববধূ রুম্পা বলেন, মনের দিক দিয়ে অনেক ভালো মানুষ অ্যাড্রিয়ান। তার ব্যবহার খুবই ভালো। আমরা যেন সারাজীবন এভাবে একসঙ্গে থাকতে পারি সেজন্য দোয়া করবেন। আমাকে তার দেশে নিয়ে যেতে চায় সে। এতে প্রায় ছয় মাসের মতো সময় লাগবে।’ অ্যাড্রিয়ান বলেন, ‘২০১৯ সালে তাকে এক ঝলক দেখেছিলাম। এরপর দীর্ঘ চার বছর ধরে তাকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যেভাবে দেখেছি তার থেকেও অনেক ভালো। এদেশের প্রকৃতি ও মানুষ খুব ভালো। এছাড়াও  খাবার ভীষণ সুস্বাদু। আমি স্ত্রীকে আমার দেশে নিয়ে যেতে চাই। আমি বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের মানুষকে খুব ভালোবাসি। অ্যাড্রিয়ান বারিসো নিরা ও নুসরাত জাহান রুম্পার বিয়ের খবরটি দিনাজপুর শহরে টক অব দ্যা টাউনে পরিণত হয়েছে।