অসুস্থ ব্যক্তির করনীয় ও দোয়া

79
অসুস্থ ব্যক্তির করনীয় ও দোয়া
অসুস্থ ব্যক্তির করনীয় ও দোয়া

সুস্থতা,অসুস্থতা, সুখ, দুঃখ, আনন্দ ও বেদনা মূলত ‍আল্লাহ তায়ালার নিকট হতে ধার্য হয়।   মানুষ অসুস্থ হলে দুঃখ বা ব্যথা পেলে নানাভাবে দুঃখ প্রকাশ করে থাকে ।  এমনকি অনেকে ‍আল্লাহর ‍প্রতি গাল-মন্দ করে আল্লাহর ওপর অসন্তুষ্ট হয়ে পড়ে। যা একেবারেই ঠিক কাজ নয়। অসুস্থ ব্যক্তির করণীয় বিষয়ে হাদীসে নির্দেশনামূলক বাণী রয়েছে। তা নিম্নে তুলে ধরা হলো

* অসুস্থ ব্যক্তির কর্তব্য – আল্লাহর ফয়সালার ওপর সব সময় সন্তুষ্ট থাকা ‍আর সাধ্য মোতাবেক ধৈর্য ধারণ করা। স্বীয় প্রভুর প্রতি ভাল ধারণা সর্বদা পোষণ করা প্রয়োজন। রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘মুমিনের জন্য আশ্চর্যের বিষয় হলো যদি তাকে আদেশ দেয়া হয় সব কর্মই তার কল্যাণকর হয়, আর এটা মুমিনের বৈশিষ্ট্য। তার প্রতি যদি কৃতজ্ঞতাপূর্ণ সুখ-শান্তি আসে, তাহলে সেটা তার জন্য কল্যাণকরই হয়। আর তার প্রতি যদি ধৈর্য ধারণের মতো বিপদ আসে সেটাও তার কল্যাণকর হয়। রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের বাণী অবশ্যই তোমাদের কেউ মৃত্যুবরণ করলে তখন সে আল্লাহর ওপর ভালো ধারণা রাখে। অর্থাৎ সুখ-দুঃখ।

* অসুস্থ ব্যক্তির উচিত নিজ কাজের জন্য আল্লাহর ভয় ও রহমত কামনা করা। হজরত আনাস রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত  হয়েছে যে, রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মৃত্যু শয্যায় শায়িত এক যুবকের কাছে গেলেন, তিনি তাকে বললেন তুমি কেমন অনুভব করছ? যুবকটি ‍উত্তরে বলল, আল্লাহর শপথ, হে আল্লাহর রাসুল! আমি আল্লাহর নিকট কামনা করি ‍আর আমার গুনাহের জন্য ভয় করি। অতপর রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তখন বলেন, কোনো বান্দার অন্তরে এ স্থানে কেবল দুটি বস্তু একত্রিত হয়, আল্লাহ তাকে তা দান করেন যা সে কামনা করে এবং নিরাপত্তা দেন যা থেকে সে ভয় করে।