Logo
মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল, ২০১৯ | ১০ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

নিউইয়র্কে জেবিবিএ’র বৈশাখী মেলায় বাঙালি সংস্কৃতির জয়গান

প্রকাশের সময়: ১২:২২ অপরাহ্ণ - রবিবার | এপ্রিল ১৪, ২০১৯

তৃতীয় মাত্রা :

‘গত বছরের দীনতা আর গ্লানি ভুলে গিয়ে মঙ্গল আর সম্ভাবনাকে ধারণ করে ১৪২৬ কে রাঙিয়ে তুলি, রঙিন করে তুলি আমাদের জীবন। আর এভাবেই আমাদের ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতিকে বহুজাতিক এ সমাজে প্রতিষ্ঠিত করার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাকে আমরা তুলে ধরি গোটাবিশ্বে’-এ আহ্বান জানিয়ে নিউইয়র্কে বাংলা নতুন বছরকে বরণে জেবিবিএ’র অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন নিউইয়র্কে বাংলাদেশের কন্সাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুননেসা।

১৩ এপ্রিল শনিবার অপরাহ্নে বাঙালি চেতনা ও সংস্কৃতির পরিপূরক পোশাকে শত-সহস্র নারী-পুরুষের ‘শুভ নববর্ষ’ আর ‘এসো হে বৈশাখ-এসো এসো’ গানের তালে জ্যাকসন হাইটসে ডাইভার্সিটি প্লাজায় বৈশাখ বরণের এ উৎসবে বিশেষ অতিথি ছিলেন স্টেট এ্যাসেম্বলিওম্যান ক্যাটালিনা ক্রুজ।
ক্যাটালিনা তার শুভেচ্ছা বক্তব্যে বলেন, ‘বাঙালিরা গড়েছেন এই জ্যাকসন হাইটসে এবং কুইন্সকে। বাঙালির এই এগিয়ে চলার মধ্য দিয়েই যুক্তরাষ্ট্র এগিয়ে চলছে। তাই বাঙালিদের নতুন বছরকে আমিও স্বাগত জানাচ্ছি। শুভ নববর্ষ।’

জেবিবিএ তথা ‘জ্যাকসন হাইটস বাংলাদেশি বিজনেস এসোসিয়েশন অব এনওয়াই’ এর এ বৈশাখী মেলা কমিটির আহ্বায়ক ও যুক্তরাষ্ট্র সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের সভাপতি রাশেদ আহমেদ সকলের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন সন্তানাদিসহ উপস্থিত হবার জন্যে।

বেলুন উড়িয়ে পান্তা-ইলিশের আমেজে বৈশাখী মেলার উদ্বোধনী মঞ্চে আরও ছিলেন ফোবানার নির্বাহী সচিব জাকারিয়া চৌধুরী, ৩৩তম ফোবানার হোস্ট কমিটির কনভেনর নার্গিস আহমেদ, যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সেক্রেটারি আব্দুল কাদের মিয়া, জেবিবিএ’র সভাপতি দিদারুল ইসলাম দিদার, সাধারণ সম্পাদক মো. কামরুজ্জামান কামরুল, মেলা কমিটির সদস্য-সচিব মোহাম্মদ হোসেন বাদশা, যুগ্ম আহ্বায়ক ফাহাদ সোলায়মানর, যুগ্ম সদস্য-সচিব নূরল আমিন বাবু, প্রধান সমন্বয়কারী জে মোল্লা সানী, জেবিবিএ’র পরিচালনা কমিটির এম রহমান, হারুন ভূঁইয়া, রফিক আহমেদ ও রুহুল আমিন সরকার, উপদেষ্টা আসেফ বারি টুটুল ও ড. রফিক আহমেদ, খান’স টিউটারিয়ালের প্রেসিডেন্ট নাঈমা খান এবং কমিউনিটি লিডার আব্দুল কাদের চৌধুরী শাহীন।

আপ্যায়ন কমিটির শাহ চিশতী এবং শাহ জে চৌধুরী, সাংস্কৃতিক কমিটির মোশারফ হোসেন, সেলিম হারুন, কামরুজ্জামান বাচ্চু ছাড়াও এ মেলার নেপথ্য কর্মীদের মধ্যে আরও ছিলেন বিপ্লব সাহা, মনসুর এ চৌধুরী, মোহাম্মদ কাশেম, সাকিল মিয়া, সাজ্জাদ হোসেন প্রমুখ।

বৈশাখী আমেজে সঙ্গীত পরিবেশন করেন কামরুজ্জামান বকুল, রোকসানা মির্জা, রাজিব, বাউল ফখরুল, চন্দন চৌধরী, নৃত্য পরিবেশন করে সামিয়া চৌধুরী এবং সিমরান খান। টানা ৪ ঘণ্টা পর্যন্ত বৈশাখ বরণের এ উৎসবে মিশে গিয়েছিলেন ভিনদেশিরাও। বাঙালির এ আয়োজন ঝলসে উঠে জ্যাকসন হাইটসের পথে প্রান্তরে।

জেবিবিএ’র এ আয়োজনে মিডিয়া পার্টনার ছিল চ্যানেল আই টিভি এবং বাংলাদেশ প্রতিদিন। পুরো অনুষ্ঠানে যন্ত্রীরা ছিলেন মাটি ব্যান্ডের পার্থ, শফিক, রিচার্ড, সায়েম, মাহফুজ।মেলা শেষে সকলেই বিনামূল্যে পান্তা-ইলিশসহ রকমারি খাবার গ্রহণ করেন।
মেলা প্রসঙ্গে জেবিবিএ’র সভাপতি দিদারুল ইসলাম এবং সেক্রেটারি কামরুজ্জামান কামরুল বলেছেন, ‘জ্যাকসন হাইটসে উত্তর আমেরিকায় বাংলাদেশিদের বাণিজ্যিক রাজধানী হিসেবে বিবেচনা করা হয়। সে তাগিদেই আমরা প্রতি বছর এ মেলা করে আসছি। এর মধ্য দিয়ে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ক্রেতা সাধারণের সম্প্রীতির বন্ধন আরও সংহত হয়। একইসঙ্গে বাঙালি-চেতনা উজ্জীবিত রাখতেও বিরাট ভূমিকা রাখে এ ধরনের কর্মসূচি।’

Read previous post:
পুরান ঢাকায় হালখাতায় উৎসব

তৃতীয় মাত্রা : পহেলা বৈশাখেই নতুন টালিখাতা খুলেছেন। নতুন বছরের শুরুতেই মেটানো হচ্ছে পুরনো সব দেনা-পাওনা। দোকান সাজিয়ে আপ্যায়ন করা...

Close

উপরে