Logo
শনিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৯ | ৯ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিরতির চ্যালেঞ্জ উড়িয়ে দুরন্ত শুরুর আশা

প্রকাশের সময়: ৯:১৫ পূর্বাহ্ণ - রবিবার | সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৬

screenshot_1

মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের মাঠে গড়াবে বাংলাদেশ-আফগানিস্তান সিরিজের প্রথম ওয়ানডে। দিন-রাত্রির এ ম্যাচটি শুরু রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুর আড়াইটায়। ওয়ানডে ক্রিকেটে বাংলাদেশের ১০ মাস বিরতির ইতি হবে এ ম্যাচ দিয়েই। এখন বিরতির চ্যালেঞ্জ উড়িয়ে দুরন্ত শুরুর আশা টাইগারদের।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এমন লম্বা বিরতি খেলায় প্রভাব ফেলতে পারে- এমন শঙ্কা উড়িয়ে দিচ্ছেন না বাংলাদেশ দলের কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। মিরপুরে ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে টাইগার কোচ বলেছেন, আফগান জাতীয় দলের বিপক্ষে তিনটি ম্যাচ জয়েই আমাদের মূল মনোযোগ। দীর্ঘদিন ধরে মাঠে না থাকা অবশ্যই খানিকটা মাথা ব্যথার। ওই অনিশ্চয়তাটুকুই আমরা জয় করতে চাই।

আফগানিস্তান আইসিসির সহযোগী সদস্য দেশ হলেও তাদের সমীহ করছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। সেইসঙ্গে আফগানদের বিপক্ষে ভালো করতে নিজেদের শক্তির দিকেও তাকাতে বলেছেন ম্যাশ। অধিনায়ক বলেন, তাদের বোলিং আক্রমণ খুবই ভালো। আমরা বিশ্বাস করি টপ কোয়ালিটির বোলিং আমাদেরও আছে। আমাদের যে শক্তি সে অনুযায়ী খেলতে পারলে ভালো কিছুই হবে। এটাই আমরা বিশ্বাস করি। মূল কথা হচ্ছে একটি আন্তর্জাতিক ম্যাচে খেলতে নামার আগে আমাদের বিশ্বাস করতে হবে নিজেদের শক্তি সম্পর্কে।

বাংলাদেশের চেয়ে শক্তিতে অনেক পিছিয়ে আফগানরা। তবে শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) ফতুল্লায় বিসিবি একাদশের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে ৬৬ রানের বড় জয় আত্মবিশ্বাসী করে তুলেছে আসগার স্টানিকজাইয়ের দলকে। বাংলাদেশের সঙ্গে লড়াকু ক্রিকেট খেলারই ইঙ্গিত দিলেন এ আফগান অধিনায়ক।

তিনি বলেছেন, নিঃসন্দেহে বাংলাদেশ অনেক ভালো দল। তবে আমরা লড়াই করতে চাই। আমাদের প্রস্তুতিও ভালো আছে। জিম্বাবুয়ের মতো টেস্ট ন্যাশনকেও আমরা হারিয়েছি। আমার ধারণা এখানকার কন্ডিশনে মিডিয়াম পেস ও স্পিন খুব কার্যকরী হবে। আমাদের দল এ দুটিতে সমৃদ্ধ।

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের ওয়ানডে দলে জায়গা পাওয়া মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের মাথায় ‍উঠতে পারে ওয়ানডে ক্যাপ। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট ও প্রিমিয়ার লিগে নজরকাড়া পারফরম্যান্সের পর শুক্রবার ফতুল্লায় আফগানদের বিপক্ষে লড়াই করেন মোসাদ্দেক একাই। তার ৭৬ রানের ইনিংসটি প্রথম ওয়ানডের একাদশে জায়গা করে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট মনে করছেন বিশ্লেষকরা। তাছাড়া কোচ চন্ডিকা হাথরুসিংহে তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ।

তিন পেসারের সঙ্গে দুই স্পিনার নিয়ে মাঠে নামার সম্ভাবনা বাংলাদেশের। সেক্ষেত্রে সাকিব আল হাসানের সঙ্গে বোলিংয়ে জুটি বাঁধবেন আরেক বাঁহাতি তাইজুল ইসলাম। পেস বিভাগ সামলাতে হতে পারে তাসকিন আহমেদ, রুবেল হোসেন ও অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাকে। ওপেনিংয়ে তামিমের সঙ্গী আরেক বাঁহাতি সৌম্য সরকার। এতে সাইড বেঞ্চে বসতে হতে পারে ইমরুল কায়েস, নাসির হোসেন ও শফিউল ইসলামকে।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ
তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, সাব্বির রহমান, মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), তাইজুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, ও রুবেল হোসেন।

Read previous post:
তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের শঙ্কা

তৃতীয় মাত্রা: ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক:স্নায়ুযুদ্ধ অবসান অন্তে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের আশঙ্কা একপ্রকার উড়িয়া গিয়াছিল। কিন্তু অধুনা সেই আশঙ্কাটি আবার ফিরিয়া আসিয়াছে। সত্যি...

Close

উপরে