Logo
শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সারাবিশ্বে মাত্র ৪০ জনের শরীরে রয়েছে যে গ্রুপের রক্ত!

প্রকাশের সময়: ১২:০২ পূর্বাহ্ণ - শনিবার | আগস্ট ২৫, ২০১৮

তৃতীয় মাত্রা

নেগেটিভ গ্রুপের রক্ত যাঁদের, বিপদের সময় তাঁদের রক্ত খুঁজে পেতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হয় আত্মীয়-পরিজনদের। এই যেমন এবি নেগেটিভ (AB-), ও নেগেটিভ (O-), বি নেগেটিভ (B-) ইত্যাদি।

কিন্তু এমন কোনও রক্তের গ্রুপের কথা কী জানেন, যে গ্রুপের মানুষের সংখ্যা পৃথিবীতে সর্বসাকুল্যে পঞ্চাশেরও কম। অবিশ্বাস্য হলেও এটিই বিশ্বের বিরলতম রক্তের গ্রুপ। রক্তের এই গ্রুপ ‘গোল্ডেন ব্লাড’ নামে পরিচিত।

এই রক্তের আরএইচ সিস্টেমে ৬১ অ্যান্টিজেনের অস্তিত্ব ছিল না। এই রক্তের নাম দেওয়া হয় ‘আরএইচ-নাল’। সাধারণত, রক্তের কোষগুলোতে ৩৪২টি অ্যান্টিজেন থেকে। এই অ্যান্টিজেনগুলোর কম্বিনেশনই নির্ধারণ করে কোনও রক্তের গ্রুপ ঠিক কী হবে। এই অ্যান্টিজেনের ভিত্তিতে মানুষের রক্তকে চার ভাগে ভাগ করা হয়। সেগুলো হল- ‘এ’, ‘বি’, ‘এবি’ আর ‘ও’। প্রত্যেকটি রক্তের গ্রুপ আবার দু ভাগে বিভক্ত ‘পজেটিভ’ এবং ‘নেগেটিভ’। অর্থাত্, সব মিলিয়ে মানুষের শরীরে মোট আট রকমের রক্ত পাওয়া যায়। সেগুলো হল- ‘এ পজেটিভ’, ‘এ নেগেটিভ’, ‘বি পজেটিভ’, ‘বি নেগেটিভ’, ‘ও পজেটিভ’, ‘ও নেগেটিভ’, ‘এবি পজেটিভ’ ও ‘এবি নেগেটিভ’।

১৯৬১ সালে প্রথম এই গ্রুপের রক্তের সন্ধান পাওয়া যায়। তারপর থেকে এ পর্যন্ত বিশ্বে মাত্র ৪০ জন মানুষের মধ্যে ‘গোল্ডেন ব্লাড’-এর অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া গিয়েছে। এই ধরনের রক্ত বিরল হওয়ার কারণে এই গ্রুপটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘গোল্ডেন ব্লাড’। এই ‘গোল্ডেন ব্লাড’-এর অধিকারীদের মধ্যে ৯ জন নিয়মিত রক্ত দান করেন।

বর্তমানে বিশ্বের জনসংখ্যা প্রায় ৮০০ কোটি (৭.৬ বিলিয়নের বেশি)। যাদের মধ্যে গত ৫৭ বছরে এমন ৪০ জনকে পাওয়া গেছে, যাঁদের শরীরে এই বিরল গ্রুপের রক্ত রয়েছে।

 

 

 

 

-jago24

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
Read previous post:
মক্কার ইমাম গ্রেপ্তার হলেন যে কারণে

তৃতীয় মাত্রা মক্কার গ্র্যান্ড মসজিদের (মসজিদুল হারাম) ইমাম ও খতিব শাইখ সালেহ আত তালিবকে গ্রেপ্তার করেছে সৌদি প্রশাসন। সম্প্রতি তাঁর...

Close

উপরে